শনিবার, ৩১ Jul ২০২১, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন

নোটিশ :
বরিশাল সময় নিউজ ডটকম অনলাইন নিউজ পোর্টালে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা ও থানা পর্যায়ে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। যারা প্রকৃতভাবে কাজ করতে ইচ্ছুক এবং সাংবাদিক হতে আগ্রহী তারা যোগাযোগ করুন, প্রকাশক ও সম্পাদকঃ ০১৭২০-৪৩৪১৭৮
বরিশালে ঈদের জামাতে করোনা থেকে মুক্তি কামনা

বরিশালে ঈদের জামাতে করোনা থেকে মুক্তি কামনা

নিজস্ব প্রতিবেদক—  চলমান বৈশ্বিক মহামারির মধ্যে সারাদেশের মতো বরিশালেও ঈদুল আজহার নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবারেও বরিশালের মসজিদে মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

মহামারি করোনার কারণে এবারেও বরিশাল নগরের হেমায়েত উদ্দিন ঈদগাহ ময়দানে ঈদুল আজহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়নি। তবে নগরের প্রায় ৫০০ মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মুসল্লিদের কথা বিবেচনা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নামাজ আদায়ের লক্ষ্যে করে বেশিরভাগ মসজিদেই একের অধিক জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। মুসল্লিরাও ঈদ জামাতে মাস্ক ব্যবহারের প্রতি বেশি সচেতন ছিলেন।

নামাজ শেষে খুতবা পাঠ ও এরপরে দোয়া-মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। মোনাজাতে হিংসা-বিদ্বেশ, হানাহানি বন্ধ হয়ে বিশ্বে শান্তি স্থাপনসহ মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ কামনা করা হয়। পাশাপাশি মহামারি করোনা ভাইরাস থেকে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সবাইকে হেফাজত ও মুক্তির জন্য আল্লাহর রহমত কামনা করা হয়।

এদিকে, বরিশাল কালেক্টরেট জামে মসজিদে বিভাগীয় কমিশনার মো. সাইফুল হাসান বাদল, জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার থেকে প্রশাসনের অন্য কর্মকর্তারা নামাজ আদায় করেন। এসময় বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক শুভেচ্ছা বক্তব্যে নিজের এবং পরিবারের সুরক্ষা বজায় রাখতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান।

কালেক্টরের জামে মসজিদসহ নগরের প্রধান প্রধান মসজিদগুলোতে সকাল ৭টা থেকে ৯ টার মধ্যে দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়া বরিশাল নগরের চকবাজার জামে এবাদুল্লাহ মসজিদে সকাল ৮টায় প্রথম ও ৯টায় দ্বিতীয়, হেমায়েত উদ্দিন রোডের জামে কসাই মসজিদে সকাল ৮টায় ও ৯টায় এবং সদর রোডের বায়তুল মোকাররম জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৭ টায় ও সাড়ে ৮টায় দ্বিতীয় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া নগরের ৩০টি ওয়ার্ড এবং বিভাগের ৬ জেলা ও ৪০ উপজেলায় সহস্রাধিক ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়।

বেশিরভাগ মসজিদেই দুই রাকাত ওয়াজিব নামাজ আদায় শেষে মহামারি করোনার কারণে মুসল্লিদের একে অপরের সঙ্গে কোলাকুলি বা করমর্দন করতে দেখা যায়নি। আর ঈদ জামাতকে ঘিরে কঠোর নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থাও নিতে দেখা গেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে।

নামাজ আদায় শেষে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় পশু কোরবানি শুরু করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৮,  বরিশাল সময় নিউজ ডটকম, বরিশাল সময় নিউজ লিমিটেডেরে একটি প্রতিষ্ঠান, এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।