বরিশাল ০৩:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

কাঠালিয়া জমি জমার সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১ জনকে পিটিয়ে জখম

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৩৫:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪ ৪৭ বার পড়া হয়েছে
নিজস্ব প্রতিবেদক— কাঠালিয়া লেবুবুনিয়া গ্রামে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিজানুর রহমান (৫৩) নামের একজনকে পিটিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। আহত মিজানুর রহমান লেবু বুনিয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলী হাওলাদার এর ছেলে।
 গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় হাওলাদার বাড়ির পাশের কোলায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহতকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে আমুয়া থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করে।
সেখানে আহত শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখা দিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।
 আহত সুত্রে জানা গেছে মৃত মোহাম্মদ আলী হাওলাদার এর ছেলে মিজানুর রহমানের সাথে জমি জমা নিয়ে পার্শ্ববর্তী ইকবাল চৌকিদার ও ফারুক চৌকিদার গংদের সাথে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছে।
 গতকাল মঙ্গলবার প্রতিপক্ষ ইকবাল চৌকিদার ও ফারুক চৌকিদার গংরা মিজানুর রহমান হাওলাদারের জমির ফসল জোরপূর্বক কাটার চেষ্টা চালায়। এ সময় মিজানুর রহমান তাতে বাধা দিতে গেলে প্রতিপক্ষ ইকবাল চৌকিদার, ফারুক চৌকিদার, মাসুদ, জাহাঙ্গীর, সাদ্দাম, শান্ত, মোস্তফা সহ অজ্ঞাত আট দশ জন দেশীয় অস্ত্র  রড ও লাঠি সোটা নিয়ে মিজানুর রহমানকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়।
 এ সময় প্রতিপক্ষরা লোহার রড দিয়ে মিজানুর রহমানকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে আহতর ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে গেলে মুমূর্ষ অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
বর্তমানে আহত মিজানুর রহমান শেবাচিমের অর্থপেডিক ওয়ার্ডে মুমূর্ষ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ বিষয়ে এত পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কাঠালিয়া জমি জমার সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১ জনকে পিটিয়ে জখম

আপডেট সময় : ০৩:৩৫:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪
নিজস্ব প্রতিবেদক— কাঠালিয়া লেবুবুনিয়া গ্রামে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিজানুর রহমান (৫৩) নামের একজনকে পিটিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। আহত মিজানুর রহমান লেবু বুনিয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলী হাওলাদার এর ছেলে।
 গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় হাওলাদার বাড়ির পাশের কোলায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহতকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে আমুয়া থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করে।
সেখানে আহত শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখা দিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।
 আহত সুত্রে জানা গেছে মৃত মোহাম্মদ আলী হাওলাদার এর ছেলে মিজানুর রহমানের সাথে জমি জমা নিয়ে পার্শ্ববর্তী ইকবাল চৌকিদার ও ফারুক চৌকিদার গংদের সাথে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছে।
 গতকাল মঙ্গলবার প্রতিপক্ষ ইকবাল চৌকিদার ও ফারুক চৌকিদার গংরা মিজানুর রহমান হাওলাদারের জমির ফসল জোরপূর্বক কাটার চেষ্টা চালায়। এ সময় মিজানুর রহমান তাতে বাধা দিতে গেলে প্রতিপক্ষ ইকবাল চৌকিদার, ফারুক চৌকিদার, মাসুদ, জাহাঙ্গীর, সাদ্দাম, শান্ত, মোস্তফা সহ অজ্ঞাত আট দশ জন দেশীয় অস্ত্র  রড ও লাঠি সোটা নিয়ে মিজানুর রহমানকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়।
 এ সময় প্রতিপক্ষরা লোহার রড দিয়ে মিজানুর রহমানকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে আহতর ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে গেলে মুমূর্ষ অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
বর্তমানে আহত মিজানুর রহমান শেবাচিমের অর্থপেডিক ওয়ার্ডে মুমূর্ষ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ বিষয়ে এত পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।