বরিশাল ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

পিরোজপুরে নৌকার কর্মীকে কুপিয়ে জখম করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীরা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৪৯:৫০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০২৪ ১০৫ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক— পিরোজপুরের নাজিরপুরে নৌকার কর্মী কৃষক লীগ নেতা লাবলু শেখকে কুপিয়ে জখম করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীরা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের ভীমকাঠী গ্রামে।

গুরুতর আহত লাভলু শেখকে (৩৮) উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আহত লাবলুর ছোট বোন কেয়া খানম জানান, তার ভাই ওই দিন সন্ধ্যার দিকে স্থানীয় বেপারীবাড়ি থেকে নিজ বাড়ি ফেরার সময় স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আরিফুর রহমান সবুজ ও তার ছোট ভাই আসিফ, নাইমসহ ১০-১২ জন যুবক তাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে মৃত ভেবে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয় গ্রামপুলিশের সদস্য পবিত্র বেপারী তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আহত লাবলু শেখ বিজয়ী নৌকার প্রার্থী শ ম রেজাউল করিমের কর্মী ও ইউনিয়ন কৃষক লীগের প্রচার সম্পাদক। আর হামলাকারীরা পরাজিত প্রার্থী (ঈগল প্রতীক) জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়ালের কর্মী বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. হান্নান বেপারী। এ ব্যাপারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান সবুজ ওই হামলার সঙ্গে নিজেকে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে কিছুই জানেন না বলে জানান।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মুনিয়া জামান জানান, তার মাথা ও মুখে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় প্রেরণ করা হয়েছে। নাজিরপুর থানার অফিসার (ওসি) মো. শাহ আলম হাওলাদার বলেন, সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পিরোজপুরে নৌকার কর্মীকে কুপিয়ে জখম করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীরা

আপডেট সময় : ০৬:৪৯:৫০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক— পিরোজপুরের নাজিরপুরে নৌকার কর্মী কৃষক লীগ নেতা লাবলু শেখকে কুপিয়ে জখম করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীরা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের ভীমকাঠী গ্রামে।

গুরুতর আহত লাভলু শেখকে (৩৮) উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আহত লাবলুর ছোট বোন কেয়া খানম জানান, তার ভাই ওই দিন সন্ধ্যার দিকে স্থানীয় বেপারীবাড়ি থেকে নিজ বাড়ি ফেরার সময় স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আরিফুর রহমান সবুজ ও তার ছোট ভাই আসিফ, নাইমসহ ১০-১২ জন যুবক তাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে মৃত ভেবে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয় গ্রামপুলিশের সদস্য পবিত্র বেপারী তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

আহত লাবলু শেখ বিজয়ী নৌকার প্রার্থী শ ম রেজাউল করিমের কর্মী ও ইউনিয়ন কৃষক লীগের প্রচার সম্পাদক। আর হামলাকারীরা পরাজিত প্রার্থী (ঈগল প্রতীক) জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএমএ আউয়ালের কর্মী বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. হান্নান বেপারী। এ ব্যাপারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান সবুজ ওই হামলার সঙ্গে নিজেকে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে কিছুই জানেন না বলে জানান।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মুনিয়া জামান জানান, তার মাথা ও মুখে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় প্রেরণ করা হয়েছে। নাজিরপুর থানার অফিসার (ওসি) মো. শাহ আলম হাওলাদার বলেন, সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।