বরিশাল ১০:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
উজিরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ৩ মির্জাগঞ্জে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন মঠবাড়িয়ায় প্রধান শিক্ষকের অনৈতিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন গৌরনদী উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হারিছুর রহমানের সমর্থনে বার্থীতে কর্মী সমাবেশ কারাগারের ভিতরে নারী কয়েদির সঙ্গে কারারক্ষীর অনৈতিক সম্পর্ক, অতঃপর… পটুয়াখালীতে গুনী সাংবাদিক নিয়াজ মোর্শেদ সেলিম আর নেই উজিরপুরে মাদক মামলার সংবাদ প্রকাশ করায় জামিনে এসে সাংবাদিকের ওপর হামলা উজিরপুরে শুরু হলো আড়াইশো বছরের ঐতিহ্যবাহী কাটাগাছ তলার বৈশাখী মেলা জুনের মধ্যে অর্থনৈতিক অবস্থা স্বাভাবিক হবে- এমপি মেনন রাজাপুরে বৈশাখী আনন্দে ঘুড়ি উৎসব অনুষ্ঠিত

উন্নয়নের ছোঁয়ায় পাল্টে যাবে বরিশালের মানচিত্র সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে: জাহিদ ফারুক শামীম

নাঈমুর রহমান ছরোয়ার
  • আপডেট সময় : ১১:০১:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৪ ৯১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক—  দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বরিশালে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব:) জাহিদ ফারুক কে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। নৌকা মার্কার নির্বাচন পরি চালনা কমিটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠা নের আয়োজন করে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বরিশাল সিটি মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত। এ সময় প্রতিমন্ত্রী ও মেয়র অতীতের দাঙ্গা হাঙ্গামা বাদ দিয়ে বরিশালের উন্নয়নে ঐক্যের ডাক দেন। তখন মহানগর আ.লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আফজালুল করিম দলের মহানগর কমিটি ভেঙে দেওয়ার দাবি জানান। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ও মেয়র খোকনের মার্কা ছিল নৌকা। কিন্তু বরিশাল মহানগর আ’লীগ ছিল ট্রাকের সমর্থক। নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় মহানগর আ.লীগ অনতিবিলম্বে ভেঙে দেওয়া দরকার।’ শনিবার বিকেলে নগরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুককে সংবর্ধনা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে সাবেক মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহর অনুসারী মহানগর আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা ছিলেন না। পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক এমপি বলেছেন, ভোলার গ্যাস বরিশালে সরবরাহের কার্যক্রম আগামী ৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে। গ্যাস সরবরাহ হলে বরিশালে শিল্প কলকারখানা গড়ে উঠবে। যুবকদের বেকারত্ব লাঘব হবে। সদর উপজেলার লামছড়িতে প্রস্তাবিত অর্থনৈতিক জোন বাস্তবায়িত হলে সেখানে ১০০ থেকে ২০০ শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠবে। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আপনারা জানেন বিগত দিনে বরিশালের উন্নয়ন হয়নি। খোকন সেরনিয়াবাতের দিকে বরিশালের মানুষ তাকিয়ে আছে। আমরা আর পিছিয়ে পড়তে চাই না। ছবি তুলে রাখুন, ২ বছর পরে উন্নয়নের ছোঁয়ায় পাল্টে যাবে বরিশালের মানচিত্র। বরিশাল এক স্বপ্নের নগরী হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমি আহবান জানাবো নির্বাচন শেষ। আসুন বরিশালের উন্নয়নে এক সঙ্গে কাজ করি। এখানে বিভাজন রাখা যাবে না। কেউ যেন নিজেকে নেতা মনে না করি। আমরা কেউ দণিাঞ্চলের সিংহ পুরুষ না।’ নৌকা মার্কার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আয়োজনে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দুপুর থেকেই নগরের ৩০টি ওয়ার্ড এবং সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন থেকে নেতা কর্মীরা আসতে শুরু করেন। বিকেল ৪টার মধ্যে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে নেতা কর্মী ও সাধারণ মানুষের লোকারণ্য হয়ে যায়। একপর্যায়ে মেয়র খোকন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুককে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেয়র খোকন বলেন, ‘বরিশালবাসী জাগ্রত হয়েছে। তাই নতুন বরিশাল গড়ার অঙ্গীকার আমাদের। প্রধানমন্ত্রী ৮০০ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন। আমরা দুইজনে মিলে কাজ করে সুন্দর বাসযোগ্য নগরী গড়ে তুলব।’ তিনি আরও বলেন, ‘নগরে আর দাঙ্গা হাঙ্গামা দেখতে চাই না। খাল খনন শুরু হয়েছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে রাস্তাঘাটের কাজ শুরু হবে।’ তিনি নগরবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আ¯’া রাখুন, উন্নত নগরের সেবা দিতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপি¯’ত ছিলেন আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য অ্যাভোকেট বলরাম পোদ্দার, মেয়র পত্নী লুনা আব্দুল্লাহ, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক আওয়ামী লীগ নেতা কে বি এস আহমদ কবির, নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আফজালুল করিম, রেজাউল হক হারুন, শাজাহান হাওলাদার, লস্কর নুরুল হক, নিজামুল ইসলাম নিজাম প্রমুখ। প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে বরিশালের প্রয়াত মেয়র হিরনের ম”ত্যুর পর একছত্র আধিপত্য স”ষ্টি করেছিল সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদিক আব্দুল্লাহ। তার পিতা আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহকে অনুসারীরা দণিাঞ্চলের সিংহ পুরুষ হিসেবে অবহিত করতো। বিগত ৫ বছরে সাদিক ও তার অনুসারীদের নানা অপকর্মে তিনি মেয়র পদে দলের মনোনয়ন হারান। জাতীয় নির্বাচনে সদর আসন থেকে মনোনয়ন চেয়েও ছিটকে পড়েন। বর্তমানে মেয়র খোকন এবং প্রতিমন্ত্রীর তৎপরতায় কোণঠাসা সাদিক অনুসারীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

উন্নয়নের ছোঁয়ায় পাল্টে যাবে বরিশালের মানচিত্র সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে: জাহিদ ফারুক শামীম

আপডেট সময় : ১১:০১:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক—  দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বরিশালে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব:) জাহিদ ফারুক কে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। নৌকা মার্কার নির্বাচন পরি চালনা কমিটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠা নের আয়োজন করে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বরিশাল সিটি মেয়র আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাত। এ সময় প্রতিমন্ত্রী ও মেয়র অতীতের দাঙ্গা হাঙ্গামা বাদ দিয়ে বরিশালের উন্নয়নে ঐক্যের ডাক দেন। তখন মহানগর আ.লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আফজালুল করিম দলের মহানগর কমিটি ভেঙে দেওয়ার দাবি জানান। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক ও মেয়র খোকনের মার্কা ছিল নৌকা। কিন্তু বরিশাল মহানগর আ’লীগ ছিল ট্রাকের সমর্থক। নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় মহানগর আ.লীগ অনতিবিলম্বে ভেঙে দেওয়া দরকার।’ শনিবার বিকেলে নগরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুককে সংবর্ধনা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে সাবেক মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহর অনুসারী মহানগর আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা ছিলেন না। পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক এমপি বলেছেন, ভোলার গ্যাস বরিশালে সরবরাহের কার্যক্রম আগামী ৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে। গ্যাস সরবরাহ হলে বরিশালে শিল্প কলকারখানা গড়ে উঠবে। যুবকদের বেকারত্ব লাঘব হবে। সদর উপজেলার লামছড়িতে প্রস্তাবিত অর্থনৈতিক জোন বাস্তবায়িত হলে সেখানে ১০০ থেকে ২০০ শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠবে। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আপনারা জানেন বিগত দিনে বরিশালের উন্নয়ন হয়নি। খোকন সেরনিয়াবাতের দিকে বরিশালের মানুষ তাকিয়ে আছে। আমরা আর পিছিয়ে পড়তে চাই না। ছবি তুলে রাখুন, ২ বছর পরে উন্নয়নের ছোঁয়ায় পাল্টে যাবে বরিশালের মানচিত্র। বরিশাল এক স্বপ্নের নগরী হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমি আহবান জানাবো নির্বাচন শেষ। আসুন বরিশালের উন্নয়নে এক সঙ্গে কাজ করি। এখানে বিভাজন রাখা যাবে না। কেউ যেন নিজেকে নেতা মনে না করি। আমরা কেউ দণিাঞ্চলের সিংহ পুরুষ না।’ নৌকা মার্কার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আয়োজনে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দুপুর থেকেই নগরের ৩০টি ওয়ার্ড এবং সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন থেকে নেতা কর্মীরা আসতে শুরু করেন। বিকেল ৪টার মধ্যে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে নেতা কর্মী ও সাধারণ মানুষের লোকারণ্য হয়ে যায়। একপর্যায়ে মেয়র খোকন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুককে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেয়র খোকন বলেন, ‘বরিশালবাসী জাগ্রত হয়েছে। তাই নতুন বরিশাল গড়ার অঙ্গীকার আমাদের। প্রধানমন্ত্রী ৮০০ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন। আমরা দুইজনে মিলে কাজ করে সুন্দর বাসযোগ্য নগরী গড়ে তুলব।’ তিনি আরও বলেন, ‘নগরে আর দাঙ্গা হাঙ্গামা দেখতে চাই না। খাল খনন শুরু হয়েছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে রাস্তাঘাটের কাজ শুরু হবে।’ তিনি নগরবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আ¯’া রাখুন, উন্নত নগরের সেবা দিতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপি¯’ত ছিলেন আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য অ্যাভোকেট বলরাম পোদ্দার, মেয়র পত্নী লুনা আব্দুল্লাহ, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক আওয়ামী লীগ নেতা কে বি এস আহমদ কবির, নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আফজালুল করিম, রেজাউল হক হারুন, শাজাহান হাওলাদার, লস্কর নুরুল হক, নিজামুল ইসলাম নিজাম প্রমুখ। প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে বরিশালের প্রয়াত মেয়র হিরনের ম”ত্যুর পর একছত্র আধিপত্য স”ষ্টি করেছিল সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদিক আব্দুল্লাহ। তার পিতা আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহকে অনুসারীরা দণিাঞ্চলের সিংহ পুরুষ হিসেবে অবহিত করতো। বিগত ৫ বছরে সাদিক ও তার অনুসারীদের নানা অপকর্মে তিনি মেয়র পদে দলের মনোনয়ন হারান। জাতীয় নির্বাচনে সদর আসন থেকে মনোনয়ন চেয়েও ছিটকে পড়েন। বর্তমানে মেয়র খোকন এবং প্রতিমন্ত্রীর তৎপরতায় কোণঠাসা সাদিক অনুসারীরা।