বরিশাল ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

মঠবাড়িয়া’য় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলক মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন।

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:০৪:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৬৬ বার পড়া হয়েছে

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি:: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া’য় গত সংসদ নির্বাচন চলাকালীন সময়ে, পুলিশের দায়ের করা একটি সাজানো ষড়যন্ত্র মূলক অস্ত্র উদ্ধার মামলায় রেদওয়ান গোলদার নামে, এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তানকে আসামি করে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। তার’ই প্রতিবাদে গত ৩ ফেব্রুয়ারি রোজ শনিবার মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে,স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা ও ভুক্তভোগী পরিবারের স্বজনরা একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার মোঃ বাচ্চু মিয়া আকন লিখিত বক্তব্যে এই অভিযোগ করেন। এবং তার’ই ধারা বাহিকতায় ৪ ফেব্রুয়ারি রোজ রবিবার সকাল ১০ ঘটিকায়, মঠবাড়িয়া পৌরসভা সম্মুখ চত্বরে মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যদের আয়োজনে, এবং সাধারণ মানুষের উপস্থিতিতে একটি মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।এ সময়ে উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সন্তানরা উপস্থিত ছিলেন। মানব বন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন মঠবাড়িয়া উপজেলার তুষখালী গ্রামের প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আজিজুর রহমান গোলদারের ছেলে ইউনিয়ন যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক রেদওয়ান গোলদারকে আটক করে পুলিশ। উদ্দেশ্য মূলক একটি সাজানো অস্ত্র উদ্ধার মামলায় আসামি করে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলাকালীন সময়ে, সাবেক সংসদ সদস্য ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর ইন্দনে প্রভাবিত হয়ে, তৎকালীন সময়ের থানার অফিসার ইনচার্জ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে আসামি করে অস্ত্র উদ্ধার মামলায় গ্রেফতার করেন। এ ঘটনায় স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়, এদিকে পুলিশ তড়িঘড়ি করে ঐ অস্ত্র মামলা দায়েরের ১০ দিনের মাথায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে আসামি করে তার চার্জশিট দাখিল করেন, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রেদওয়ান গোলদার গত ৮ নভেম্বর ২০২৩’ইং তারিখ থেকে জেল হাজতে রয়েছেন। মানব বন্ধনে নির্বাচন চলাকালীন সময়ে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে অন্যায় ভাবে জড়িয়ে পুলিশের এই সাজানো মামলার, ন্যায় সঙ্গতভাবে তদন্তের দাবি জানান। মানব বন্ধনে বীর মুক্তিযোদ্ধারা আরো অভিযোগ করে বলেন। নির্বাচনী সহিংসতার জের ধরে তুষখালী ইউ পি চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান হাওলাদার এর বিরুদ্ধে পুলিশ পৃথক একটি মামলা দায়ের করেন, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বিরুদ্ধে পুলিশের এই সাজানো মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান তারা, অন্যথায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের স্বজনরা পরবর্তী কঠোর প্রতিবাদ কর্মসূচি হাতে নিবেন বলে হুঁশিয়ারি দেয় তারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মঠবাড়িয়া’য় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলক মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন।

আপডেট সময় : ০৮:০৪:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি:: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া’য় গত সংসদ নির্বাচন চলাকালীন সময়ে, পুলিশের দায়ের করা একটি সাজানো ষড়যন্ত্র মূলক অস্ত্র উদ্ধার মামলায় রেদওয়ান গোলদার নামে, এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তানকে আসামি করে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। তার’ই প্রতিবাদে গত ৩ ফেব্রুয়ারি রোজ শনিবার মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে,স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা ও ভুক্তভোগী পরিবারের স্বজনরা একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার মোঃ বাচ্চু মিয়া আকন লিখিত বক্তব্যে এই অভিযোগ করেন। এবং তার’ই ধারা বাহিকতায় ৪ ফেব্রুয়ারি রোজ রবিবার সকাল ১০ ঘটিকায়, মঠবাড়িয়া পৌরসভা সম্মুখ চত্বরে মঠবাড়িয়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যদের আয়োজনে, এবং সাধারণ মানুষের উপস্থিতিতে একটি মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।এ সময়ে উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সন্তানরা উপস্থিত ছিলেন। মানব বন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন মঠবাড়িয়া উপজেলার তুষখালী গ্রামের প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আজিজুর রহমান গোলদারের ছেলে ইউনিয়ন যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক রেদওয়ান গোলদারকে আটক করে পুলিশ। উদ্দেশ্য মূলক একটি সাজানো অস্ত্র উদ্ধার মামলায় আসামি করে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলাকালীন সময়ে, সাবেক সংসদ সদস্য ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর ইন্দনে প্রভাবিত হয়ে, তৎকালীন সময়ের থানার অফিসার ইনচার্জ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে আসামি করে অস্ত্র উদ্ধার মামলায় গ্রেফতার করেন। এ ঘটনায় স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়, এদিকে পুলিশ তড়িঘড়ি করে ঐ অস্ত্র মামলা দায়েরের ১০ দিনের মাথায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে আসামি করে তার চার্জশিট দাখিল করেন, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রেদওয়ান গোলদার গত ৮ নভেম্বর ২০২৩’ইং তারিখ থেকে জেল হাজতে রয়েছেন। মানব বন্ধনে নির্বাচন চলাকালীন সময়ে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে অন্যায় ভাবে জড়িয়ে পুলিশের এই সাজানো মামলার, ন্যায় সঙ্গতভাবে তদন্তের দাবি জানান। মানব বন্ধনে বীর মুক্তিযোদ্ধারা আরো অভিযোগ করে বলেন। নির্বাচনী সহিংসতার জের ধরে তুষখালী ইউ পি চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান হাওলাদার এর বিরুদ্ধে পুলিশ পৃথক একটি মামলা দায়ের করেন, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বিরুদ্ধে পুলিশের এই সাজানো মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান তারা, অন্যথায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের স্বজনরা পরবর্তী কঠোর প্রতিবাদ কর্মসূচি হাতে নিবেন বলে হুঁশিয়ারি দেয় তারা।