বরিশাল ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

রাজকে নিয়ে সন্দেহ, নিজের গায়ে আগুন দেন শুভশ্রী!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৪১:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৪৯ বার পড়া হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক— টলিউডের বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় দম্পতিদের একজন রাজ-শুভশ্রী জুটি। কিন্তু এই দুই তারকার বিয়ের আগে নাকি ত্রিকোণ প্রেমের ঘটনা ঘটেছে। যা নিয়ে এখনও চর্চা চলে অন্দরমহলে।ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টিভি নাইন-এর প্রতিবেদন অনুসারে, ২০১৬-১৭ সালের কাহিনী এটি। টলিপাড়ার প্রথম সারির দুই নায়িকা ও পরিচালকের ত্রিকোণ প্রেমের গল্প। পরিচালক ভালোবাসতেন এক নায়িকাকে, তার বিরুদ্ধে উঠে প্রতারণার অভিযোগ। এরপর তাদের দুজনের প্রেমের মাঝে ঢুকে পড়েন আরেক নায়িকা।

সেই নায়িকার সঙ্গে যখন সম্পর্ক বিয়ের দিকে এগোচ্ছে, তখনই নাকি প্রথম প্রেমিকা আবারও ফিরে আসেন। শুনতে সিনেমার গল্প মনে হলেও, অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী, শুভশ্রী গাঙ্গুলি ও পরিচালক রাজ চক্রবর্তীকে নিয়ে ২০২৪ সালেও সেই গল্প শোনা যায় অনেকের মুখে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে এক সময় তুমুল প্রেম ছিল রাজ চক্রবর্তীর। সেই মিমিই অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের প্রথম ছবি ‘গ্যাংস্টার’‌য়ের শ্যুটিংয়ে তুরস্কে গিয়ে এক প্রযোজকের ছেলের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। এরপর দেশে ফিরতেই রাজের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় অভিনেত্রীর।

এদিকে মিমির সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে রাজ শুভশ্রীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। বিয়ের কথাও ভাবতে শুরু করেন দু’জন। এমন অবস্থায় আবারও রাজের জীবনে আসেন মিমি। বিচ্ছেদ হলেও প্রাক্তনের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেছিলেন পরিচালক। যেটাই মেনে নিতে পারেননি শুভশ্রী।

টলিপাড়ার অন্দরমহলের খবর, পুরো ঘটনায় দুই নায়িকাই বেশ কষ্ট পান। রাজের অফিসে গিয়ে মিমির সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন তোলেন শুভশ্রী। যেটা শুনেই ক্ষেপে যান নির্মাতা। বিচ্ছেদ হয় দু’জনের সেই মুহূর্তেই।

এদিকে সম্পর্কের টানাপোড়নে নাকি ঘুমের ওষুধ খেয়ে ফেলেন মিমি। হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। অন্যদিকে শুভশ্রীও মানতে পারছিলেন না এসব। তিনিও হাইল্যান্ডের পার্কের ফ্ল্যাটে লাইটার থেকে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে শোনা যায়।

যদিও ঘটনাগুলো প্রকাশ্যে আসার পর সব ‘মিথ্যা’ বলে উড়িয়ে দেন তিনজনই। এমনকি মিডিয়ার বিরুদ্ধেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন রাজ। তবে সত্যটা আড়াল করতে পারেননি। এত বছর পরেও নাকি এখনও টলিপাড়ার অন্দরমহলে আলোচনা হয় রাজ-শুভশ্রী-রাজের ত্রিকোন প্রেমের ঘটনা নিয়ে।

এদিকে সেই ত্রিকোন প্রেম পরিণতি পায়নি এমনও কিন্তু নয়, বছরখানেক বাদেই শুভশ্রীর গলায় মালা দেন রাজ। বর্তমানে এই দম্পতির সংসারে রয়েছে দুটি সন্তান। অন্যদিকে রাজের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর নতুন করে আর কোনো সম্পর্কে জড়াননি মিমি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রাজকে নিয়ে সন্দেহ, নিজের গায়ে আগুন দেন শুভশ্রী!

আপডেট সময় : ০৭:৪১:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বিনোদন ডেস্ক— টলিউডের বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় দম্পতিদের একজন রাজ-শুভশ্রী জুটি। কিন্তু এই দুই তারকার বিয়ের আগে নাকি ত্রিকোণ প্রেমের ঘটনা ঘটেছে। যা নিয়ে এখনও চর্চা চলে অন্দরমহলে।ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টিভি নাইন-এর প্রতিবেদন অনুসারে, ২০১৬-১৭ সালের কাহিনী এটি। টলিপাড়ার প্রথম সারির দুই নায়িকা ও পরিচালকের ত্রিকোণ প্রেমের গল্প। পরিচালক ভালোবাসতেন এক নায়িকাকে, তার বিরুদ্ধে উঠে প্রতারণার অভিযোগ। এরপর তাদের দুজনের প্রেমের মাঝে ঢুকে পড়েন আরেক নায়িকা।

সেই নায়িকার সঙ্গে যখন সম্পর্ক বিয়ের দিকে এগোচ্ছে, তখনই নাকি প্রথম প্রেমিকা আবারও ফিরে আসেন। শুনতে সিনেমার গল্প মনে হলেও, অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী, শুভশ্রী গাঙ্গুলি ও পরিচালক রাজ চক্রবর্তীকে নিয়ে ২০২৪ সালেও সেই গল্প শোনা যায় অনেকের মুখে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে এক সময় তুমুল প্রেম ছিল রাজ চক্রবর্তীর। সেই মিমিই অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের প্রথম ছবি ‘গ্যাংস্টার’‌য়ের শ্যুটিংয়ে তুরস্কে গিয়ে এক প্রযোজকের ছেলের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। এরপর দেশে ফিরতেই রাজের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় অভিনেত্রীর।

এদিকে মিমির সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে রাজ শুভশ্রীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। বিয়ের কথাও ভাবতে শুরু করেন দু’জন। এমন অবস্থায় আবারও রাজের জীবনে আসেন মিমি। বিচ্ছেদ হলেও প্রাক্তনের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেছিলেন পরিচালক। যেটাই মেনে নিতে পারেননি শুভশ্রী।

টলিপাড়ার অন্দরমহলের খবর, পুরো ঘটনায় দুই নায়িকাই বেশ কষ্ট পান। রাজের অফিসে গিয়ে মিমির সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন তোলেন শুভশ্রী। যেটা শুনেই ক্ষেপে যান নির্মাতা। বিচ্ছেদ হয় দু’জনের সেই মুহূর্তেই।

এদিকে সম্পর্কের টানাপোড়নে নাকি ঘুমের ওষুধ খেয়ে ফেলেন মিমি। হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। অন্যদিকে শুভশ্রীও মানতে পারছিলেন না এসব। তিনিও হাইল্যান্ডের পার্কের ফ্ল্যাটে লাইটার থেকে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে শোনা যায়।

যদিও ঘটনাগুলো প্রকাশ্যে আসার পর সব ‘মিথ্যা’ বলে উড়িয়ে দেন তিনজনই। এমনকি মিডিয়ার বিরুদ্ধেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন রাজ। তবে সত্যটা আড়াল করতে পারেননি। এত বছর পরেও নাকি এখনও টলিপাড়ার অন্দরমহলে আলোচনা হয় রাজ-শুভশ্রী-রাজের ত্রিকোন প্রেমের ঘটনা নিয়ে।

এদিকে সেই ত্রিকোন প্রেম পরিণতি পায়নি এমনও কিন্তু নয়, বছরখানেক বাদেই শুভশ্রীর গলায় মালা দেন রাজ। বর্তমানে এই দম্পতির সংসারে রয়েছে দুটি সন্তান। অন্যদিকে রাজের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর নতুন করে আর কোনো সম্পর্কে জড়াননি মিমি।