বরিশাল ০৩:১০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

বাকেরগঞ্জে বিধবাকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৮:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৪০ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাকেরগঞ্জে জমি বিরোধের জের ধরে হালিমা বেগম নামে এক বিধবা মহিলাকে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় তার সাথে থাকা স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়া হয়। গত ১০ ফেব্রুয়ারি শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে বড় রঘুনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা আহত হালিমাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। হালিমা ওই এলাকার মৃত সিরাজ খলিফার স্ত্রী। আহতের মেয়ে নুরুন্নাহার জানান, দীর্ঘদিন ধরে আমার পৈত্রিক ওয়ারিশ জমি নিয়ে প্রতিবেশী মৃত আফছের মৃধার তিন ছেলে দেলোয়ার হোসেন, আব্দুল মালেক মৃধা এবং আবুল মৃধা সহ তাদের পরিবারদের সাথে পূর্ব বিরোধ চলে আসছে। আমাদের জমি দখল করতে প্রায় সময় আমাদেরকে বিভিন্ন ভয়-ভীতি সহ খুন জখমের হুমকি দেয় দেলোয়ার গং। বিষয়টি নিয়ে আদালতে মামলাও চলমান রয়েছে। বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে প্রায় সময় আমাদের সাথে শত্রুতা করে প্রতিপক্ষরা। আমরা এদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গেলে হামলা মামলার শিকার হতে হয়। ঘটনার দিন শনিবার আমাদের গাছের ফল চুরি করে বিক্রি করে দেলোয়ার মালেকসহ তাদের সহযোগীরা। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করলেন শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে দেলোয়ার ও তার স্ত্রী ফরিদা মালেক ও তার স্ত্রী কুলসুম,আবু মৃধা ও তার স্ত্রী আসিয়া, এবং তাদের সহযোগী বুলেট মৃধা সহ ৭-৮ জন সন্ত্রাসী পরিকল্পিতভাবে আমার মা হালিমাকে হত্যার চেষ্টায় এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে স্বজনদের সূত্রে জানা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বাকেরগঞ্জে বিধবাকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৪:৪৮:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বাকেরগঞ্জে জমি বিরোধের জের ধরে হালিমা বেগম নামে এক বিধবা মহিলাকে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় তার সাথে থাকা স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়া হয়। গত ১০ ফেব্রুয়ারি শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে বড় রঘুনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা আহত হালিমাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। হালিমা ওই এলাকার মৃত সিরাজ খলিফার স্ত্রী। আহতের মেয়ে নুরুন্নাহার জানান, দীর্ঘদিন ধরে আমার পৈত্রিক ওয়ারিশ জমি নিয়ে প্রতিবেশী মৃত আফছের মৃধার তিন ছেলে দেলোয়ার হোসেন, আব্দুল মালেক মৃধা এবং আবুল মৃধা সহ তাদের পরিবারদের সাথে পূর্ব বিরোধ চলে আসছে। আমাদের জমি দখল করতে প্রায় সময় আমাদেরকে বিভিন্ন ভয়-ভীতি সহ খুন জখমের হুমকি দেয় দেলোয়ার গং। বিষয়টি নিয়ে আদালতে মামলাও চলমান রয়েছে। বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে প্রায় সময় আমাদের সাথে শত্রুতা করে প্রতিপক্ষরা। আমরা এদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গেলে হামলা মামলার শিকার হতে হয়। ঘটনার দিন শনিবার আমাদের গাছের ফল চুরি করে বিক্রি করে দেলোয়ার মালেকসহ তাদের সহযোগীরা। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করলেন শনিবার দুপুর দেড়টার দিকে দেলোয়ার ও তার স্ত্রী ফরিদা মালেক ও তার স্ত্রী কুলসুম,আবু মৃধা ও তার স্ত্রী আসিয়া, এবং তাদের সহযোগী বুলেট মৃধা সহ ৭-৮ জন সন্ত্রাসী পরিকল্পিতভাবে আমার মা হালিমাকে হত্যার চেষ্টায় এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে স্বজনদের সূত্রে জানা যায়।