বরিশাল ১২:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বাবা মুক্তিযোদ্ধা না তবু ও কোটায় চাকরি তিন ছেলের যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান’র মৃত্যুবার্ষিকীতে গৌরনদীতে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত ভোলায় হাসপাতালে লাশ রেখে পালালেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন, স্বজনদের দাবি হত্যা নলছিটিতে চাচাকে হত্যা চেষ্টা মামলায় ভাতিজা গ্রেপ্তার বিয়ের দাবিতে ছাত্রদল নেতার বাড়িতে তরুণীর অনশন মাদারীপুরে দুগ্ধপোষ্য ২ সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে মানসিক ভারসাম্যহীন মা গৌরনদীতে পূর্ব শত্রুতার একজনকে খুপিয়ে জখম আমতলীতে গুপ্তধন দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নিলো কবিরাজ ভোলায় ১১৫ পিস ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুই চিকিৎসকের মধ্যে হাতাহাতি

পটুয়াখালীতে রাস্তার পাশের ঝোপ থেকে নবজাতক উদ্ধার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২৪:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৫১ বার পড়া হয়েছে

রিপন দাস, বিশেষ প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালী শের-ই বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সড়কের একটি বেসরকারি ক্লিনিকের রাস্তার অপর পাশের ঝোপের ভিতর থেকে একটি নবজাতক শিশু উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। রোববার(২৫ফেব্রুয়ারী) দুপুর ২টার পর ইয়ামিন নামের স্থানীয় এক যুবক শিশুটিকে দেখতে পায়। পরে স্থানীয় কাউন্সিলর ও এলাকাবাসী শিশুটিকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে শিশুটি হাসপাতালের স্ক্যানু বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী নারগিস আক্তার বলেন,‌ আমি হঠাৎ করে রাস্তার পাশে একটি শিশু পাওয়া গেছে শুনে দৌড়ে আসি। এসে দেখি রক্তমাখা একটি শিশুকে ঝোপের মধ্য থেকে স্থানীয়রা বের করছে। আমি কয়েকটি কাপড় নিয়ে সেখানে দৌড়ে গিয়ে বাচ্চাটিকে জড়িয়ে কোলে নেই।

স্থানীয় যুবক মোঃ ইয়ামিন বলেন, আমি আমার ঘরের ময়লা ফেলতে রাস্তার পাশে যাই। এ সময় একটি বাচ্চার কান্না শুনতে পেয়ে ও ঝোপের মধ্যে বাচ্চাটিকে নড়তে দেখে আশেপাশের সবাইকে ডাক দেই। এই সময় আমাদের কাউন্সিলর ও শাহীন চাচা এই দুইজন এসে আমাকে বাচ্চাটিকে বের করতে সাহায্য করে। পরে বাচ্চাটিকে নিয়ে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করি।

পটুয়াখালী পৌর শ্রমিকলীগের সভাপতি মোঃ শাহীন ফরাজি জানান, তার এলাকার ইয়ামিন নামের একটি ছেলে রাস্তার পাশের ঝোপের মধ্যে একটু শিশু পরে আছে এমন কথা বললে সে বাচ্চাটির কাছে যায়। এমন সময় স্থানীয় কাউন্সিলর আলাউদ্দীন আলাল সেই স্থানে চলে আসে। তখন সবাই মিলে শিশুটিকে উদ্ধার করেন।

স্থানীয় ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলাউদ্দীন আলাল বলেন, আমি নির্বাচনী প্রচারনা চালিয়ে শের-ই বাংলা সড়কের হিমি পলি ক্লিনিকের কাছে পৌঁছালে একটু নবজাতক শিশু রাস্তার পাশে পড়ে আছে জানতে পারি। এসময় স্থানীয়দের সহায়তায় শিশুটিকে নিয়ে হাসপাতালের দিকে রওনা দেয়ার সময় পুলিশ চলে আসে। তারাও আমাকে শিশুটিকে নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। আমি স্থানীয় কয়েকজনকে নিয়ে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করি। শিশুটি এখন ভালো আছে।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্ক্যানু বিভাগের সিনিয়র স্টাফ নার্স শামিমা নাসরিন জানান, একটি ছেলে নবজাতকে হাসপাতালে নিয়ে আসে কয়েকজন। আমরা শিশুটির অক্সিজেন লেভেল চেক থেকে শুরু করে তার স্বাস্থ্য পরিক্ষা সম্পন্ন করি। শিশুটি বর্তমানে সুস্থ আছে।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ জসিম জানান, নবজাতকটি বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে এবং সুস্থ আছে। এছাড়া পরবর্তীতে সমাজসেবা অফিস এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পটুয়াখালীতে রাস্তার পাশের ঝোপ থেকে নবজাতক উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৮:২৪:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রিপন দাস, বিশেষ প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালী শের-ই বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় সড়কের একটি বেসরকারি ক্লিনিকের রাস্তার অপর পাশের ঝোপের ভিতর থেকে একটি নবজাতক শিশু উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। রোববার(২৫ফেব্রুয়ারী) দুপুর ২টার পর ইয়ামিন নামের স্থানীয় এক যুবক শিশুটিকে দেখতে পায়। পরে স্থানীয় কাউন্সিলর ও এলাকাবাসী শিশুটিকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে শিশুটি হাসপাতালের স্ক্যানু বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী নারগিস আক্তার বলেন,‌ আমি হঠাৎ করে রাস্তার পাশে একটি শিশু পাওয়া গেছে শুনে দৌড়ে আসি। এসে দেখি রক্তমাখা একটি শিশুকে ঝোপের মধ্য থেকে স্থানীয়রা বের করছে। আমি কয়েকটি কাপড় নিয়ে সেখানে দৌড়ে গিয়ে বাচ্চাটিকে জড়িয়ে কোলে নেই।

স্থানীয় যুবক মোঃ ইয়ামিন বলেন, আমি আমার ঘরের ময়লা ফেলতে রাস্তার পাশে যাই। এ সময় একটি বাচ্চার কান্না শুনতে পেয়ে ও ঝোপের মধ্যে বাচ্চাটিকে নড়তে দেখে আশেপাশের সবাইকে ডাক দেই। এই সময় আমাদের কাউন্সিলর ও শাহীন চাচা এই দুইজন এসে আমাকে বাচ্চাটিকে বের করতে সাহায্য করে। পরে বাচ্চাটিকে নিয়ে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করি।

পটুয়াখালী পৌর শ্রমিকলীগের সভাপতি মোঃ শাহীন ফরাজি জানান, তার এলাকার ইয়ামিন নামের একটি ছেলে রাস্তার পাশের ঝোপের মধ্যে একটু শিশু পরে আছে এমন কথা বললে সে বাচ্চাটির কাছে যায়। এমন সময় স্থানীয় কাউন্সিলর আলাউদ্দীন আলাল সেই স্থানে চলে আসে। তখন সবাই মিলে শিশুটিকে উদ্ধার করেন।

স্থানীয় ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলাউদ্দীন আলাল বলেন, আমি নির্বাচনী প্রচারনা চালিয়ে শের-ই বাংলা সড়কের হিমি পলি ক্লিনিকের কাছে পৌঁছালে একটু নবজাতক শিশু রাস্তার পাশে পড়ে আছে জানতে পারি। এসময় স্থানীয়দের সহায়তায় শিশুটিকে নিয়ে হাসপাতালের দিকে রওনা দেয়ার সময় পুলিশ চলে আসে। তারাও আমাকে শিশুটিকে নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। আমি স্থানীয় কয়েকজনকে নিয়ে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করি। শিশুটি এখন ভালো আছে।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্ক্যানু বিভাগের সিনিয়র স্টাফ নার্স শামিমা নাসরিন জানান, একটি ছেলে নবজাতকে হাসপাতালে নিয়ে আসে কয়েকজন। আমরা শিশুটির অক্সিজেন লেভেল চেক থেকে শুরু করে তার স্বাস্থ্য পরিক্ষা সম্পন্ন করি। শিশুটি বর্তমানে সুস্থ আছে।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ জসিম জানান, নবজাতকটি বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে এবং সুস্থ আছে। এছাড়া পরবর্তীতে সমাজসেবা অফিস এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।