বরিশাল ০৯:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বানারীপাড়ায় মায়ের যৌন লালসার বলি ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী বরিশালে শালিণ্য’র আয়োজনে নিরাপদ পানি বিষয়ক ক্যাম্পেইন ও নানান কর্মসূচি পালিত  পটুয়াখালী উপজেলা পরিষদে নতুন তিন মুখের বিজয়ের হাসি বেতাগীতে স্মার্ট ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে র‍্যালি ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত উজিরপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহ উদ্ধোধন  উজিরপুরে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানকে বরন তালতলীতে বিজয়ী প্রার্থী মিন্টুর সমর্থককে মারধর, দোকান ভাংচুর করে লুট গৌরনদীতে মটর সাইকেলের সর্বশেষ জনসভা অনুষ্ঠিত বিজয়ী ফলাফলে নেতাকর্মীদের অতিউৎসাহিত না হওয়ার জন্য নির্দেশ দেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ইকবাল মঠবাড়িয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় হামলার শিকার ব্যবসায়ী নিহত

বরগুনায় পাবলিকের বাশঁ কেটে নিল বন বিভাগ

খাইরুল ইসলাম মুন্না
  • আপডেট সময় : ০১:৩১:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৩৭ বার পড়া হয়েছে

বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি— বরগুনার বেতাগীতে জনগণের ব্যক্তি মালিকানাধীন শতাধিক বাশঁ বিনা অনুমতিতে কেটে নিয়েছেন বন বিভাগের লোকজন। বন বিভাগের দাবি সরকারি নার্সারির কাজে ব্যবহার করা হবে এসব বাশঁ । তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।
গতকাল উপজেলার বেতাগী সদর ইউনিয়নের জিনবুনিয়া ও মোকামিয়া ইউনিয়নের ছোট মোকামিয়া গ্রামের বেরিবাধের পাশে রোপিত ব্যক্তি মালিকানাধীন বাশঁ ঝাড় থেকে কাউকে না বলে প্রায় দুই শতাধিক বাশঁ কেটে নিয়ে যায়। মোকামিয়া ইউনিয়নের ছোট মোকামিয়া গ্রামের মোহাম্মদ রাব্বির নিজস্ব জমির একটি বাঁশঝাড় থেকে প্রায় চল্লিশ থেকে পঞ্চাশটি বাশঁ তাকে না বলে কেটে নিয়ে যায় বন বিভাগের লোকজন। এছাড়াও পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেরিবাধ জমিতে রোপিত ব্যক্তি মালিকানাধীন বিভিন্ন বাঁশঝাড় থেকে এভাবে বাঁশ কেটে নেয়। বেতাগী সদর ইউনিয়নের জিনবুনিয়া গ্রামের নজরুল খান উপজেলা বন কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ জানালেও কোন প্রতিকার পাননি।
মোকামিয়া ইউনিয়নের ছোট মোকামিয়া গ্রামের মোহাম্মদ রাব্বি বলেন, আমার নিজের জমিতে রোপিত বাঁশঝাড় থেকে চল্লিশ থেকে পঞ্চাশটি বাশঁ আমাকে না বলে কেটে নিয়ে যায়।
উপজেলা বন কর্মকর্তা মোঃ বেলায়েত হোসেন বলেন, সরকারি নার্সারী করার জন্য এসব বাশঁব্যবহার করা হবে। নার্সারি করার জন্য সরকারিভাবে কোন অর্থ বরাদ্দ থাকে না তাই আমাদেরকে এই প্রক্রিয়ায় বাশঁ সংগ্রহ করতে হয়।

বরগুনার সরকারি বন সংরক্ষক মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, আমি বিষয়টি জানিনা তবে জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারুক আহমেদ বলেন, জনগণের বাশঁ এনে নার্সারি করার কোন সুযোগ নেই। যদি এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে আমি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বরগুনায় পাবলিকের বাশঁ কেটে নিল বন বিভাগ

আপডেট সময় : ০১:৩১:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি— বরগুনার বেতাগীতে জনগণের ব্যক্তি মালিকানাধীন শতাধিক বাশঁ বিনা অনুমতিতে কেটে নিয়েছেন বন বিভাগের লোকজন। বন বিভাগের দাবি সরকারি নার্সারির কাজে ব্যবহার করা হবে এসব বাশঁ । তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।
গতকাল উপজেলার বেতাগী সদর ইউনিয়নের জিনবুনিয়া ও মোকামিয়া ইউনিয়নের ছোট মোকামিয়া গ্রামের বেরিবাধের পাশে রোপিত ব্যক্তি মালিকানাধীন বাশঁ ঝাড় থেকে কাউকে না বলে প্রায় দুই শতাধিক বাশঁ কেটে নিয়ে যায়। মোকামিয়া ইউনিয়নের ছোট মোকামিয়া গ্রামের মোহাম্মদ রাব্বির নিজস্ব জমির একটি বাঁশঝাড় থেকে প্রায় চল্লিশ থেকে পঞ্চাশটি বাশঁ তাকে না বলে কেটে নিয়ে যায় বন বিভাগের লোকজন। এছাড়াও পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেরিবাধ জমিতে রোপিত ব্যক্তি মালিকানাধীন বিভিন্ন বাঁশঝাড় থেকে এভাবে বাঁশ কেটে নেয়। বেতাগী সদর ইউনিয়নের জিনবুনিয়া গ্রামের নজরুল খান উপজেলা বন কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ জানালেও কোন প্রতিকার পাননি।
মোকামিয়া ইউনিয়নের ছোট মোকামিয়া গ্রামের মোহাম্মদ রাব্বি বলেন, আমার নিজের জমিতে রোপিত বাঁশঝাড় থেকে চল্লিশ থেকে পঞ্চাশটি বাশঁ আমাকে না বলে কেটে নিয়ে যায়।
উপজেলা বন কর্মকর্তা মোঃ বেলায়েত হোসেন বলেন, সরকারি নার্সারী করার জন্য এসব বাশঁব্যবহার করা হবে। নার্সারি করার জন্য সরকারিভাবে কোন অর্থ বরাদ্দ থাকে না তাই আমাদেরকে এই প্রক্রিয়ায় বাশঁ সংগ্রহ করতে হয়।

বরগুনার সরকারি বন সংরক্ষক মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, আমি বিষয়টি জানিনা তবে জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারুক আহমেদ বলেন, জনগণের বাশঁ এনে নার্সারি করার কোন সুযোগ নেই। যদি এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে আমি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।