বরিশাল ১২:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
রাজাপুরে এসএসসি ২০১৬ ব্যাচের ইফতার ও পূর্নমিলনী অনুষ্ঠিত উজিরপুরে এসএসসি ২০১৬ ব্যাচের ইফতার ও পূর্নমিলনী অনুষ্ঠিত সুবিদখালী দারুসসুন্নাত ফাজিল মাদ্রাসার প্রাক্তন ছাত্র এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল উজিরপুরে ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ডাকাত সর্দার শহীদুল গ্রেফতার রিয়াজ উদ্দিন আহমেদকে পুনরায় উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় মঠবাড়িয়াবাসী পটুয়াখালীতে সৌদি আরবের সাথে ঈদ উদযাপন  ভুরিয়া ইউপি নির্বাচনে আনারস প্রতীক পেলেন জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব সরোয়ার হোসেন খান পটুয়াখালীতে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা পরিস্থিতি পরিদর্শনে পুলিশ সুপার  পটুয়াখালী সদর উপজেলা বাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন যুবলীগ নেতা রেজাউল করিম সোয়েব মঠবাড়িয়ায় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে মসজিদের ইমামের উপর হামলা

এখন পটুয়াখালী পৌরসভা নির্বাচন চলে। এই মুহুর্তে স্টল নিয়ে এতো কথা বলছেন কেন ?

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:০৮:২০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪ ৩২৩ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : আগামী ৯ মার্চ পটুয়াখালী পৌরসভার নির্বাচন। পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ’র নামে পৌর নিউমার্কেটে স্টল বরাদ্দে অনিয়ম ও অভিযোগ উঠতে তার সত্যতা যাচাই করতে গিয়ে পটুয়াখালী বিএনপি নেতা ও পৌর মেয়রের চাচাতো ভাই’র সাংবাদিকদের গালিগাল ও ডিজিটাল নিরাপত্তা মামলার হুমকির তোপে গণমাধ্যমের কর্মীরা।

পৌর নিউমার্কেটে স্টল বরাদ্দে অনিয়ম ও অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ে সরেজমিনে দেখতে গিয়ে পৌর নিউমার্কেটের কিচেন মার্কেটের নিচ তলার ১০৪ নাম্বার তুলনা স্টোর্স নামের স্টলের প্রোপাইটরের ফোন নাম্বারে যোগাযোগ করলে ফোনটি রিসিভ করেন লিমা রহমানের স্বামী কমলাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনির। এসময় স্টলের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের অকথ্য ভাষায় গালিগাল করেন এবং তিনি সাংবাদিকদের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দেয়ার হুমকি দেন।

স্টল বরাদ্দের বিষয়ে তুলনা স্টোরের প্রোপাইটার মনির চ্যেয়ারম্যানের স্ত্রীর লিমার বক্তব্যের জন্য তার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে আবারো ফোনটি রিসিভ করেন ইউপি চেয়ারম্যান মনির হোসেন। এসময় তিনি বলেন, “এখন পটুয়াখালী পৌরসভা নির্বাচন চলে। এই মুহুর্তে স্টল নিয়ে এতো কথা বলছেন কেন!”

এবিষয়ে তুলনা স্টোরের প্রোপাইটার লিমা রহমান জানান, চরপাড়া আমার ঘর ভাঙ্গা হয়েছে আর সে কারনেই নিউমার্কেটের কিচেন মার্কেটে স্টল পাই।
খোজ নিয়ে যানাযায় এই লিমা রহমান পটুয়াখালীর চরপাড়ায় সরকারি জমি দখল করে ঘড় উঠিয়ে ভাড়া দিতেন। নদী দখল মুক্ত করার অভিযানে ভেঙ্গে ফেলা হয় সেই ঘড়।মেয়রের আত্মীয় হিসেবে সেই ঘড়ের ক্ষতিপূরণ হিসেবে তিনি কিচেন মার্কেটে স্টল বরাদ্দ পেলেও ওই একই সরকারি জায়গাতে ঝুঁপড়ি ঘড়ে থাকা ছিন্নমূল ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের মাথা গোঁজার কোন ব্যাবস্থাই করেননি পৌর মেয়র মহিউদ্দিন।

পটুয়াখালী পৌর নিউমার্কেটে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে মেয়র মহিউদ্দিন পৌর নিউমার্কেট বাজারে কিচেন মার্কেট করার ঘোষনা দেয়। এরপরে পৌরসভার পক্ষ থেকে নিউমার্কেটের ব্যাবসায়ীদের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান স্থানান্তর করার জন্য দফায় দফায় বৈঠক করা হয়। তবে স্থান দ্রুত পরিবর্তন করাটা ব্যাবসায়ীদের জন্য সহজ ছিল না। তবে নিউমার্কেটের ব্যাবসায়ীদের সাথে পৌর কর্তৃপক্ষের আলোচনার একমাস শেষ হতে না হতেই হঠাৎ করেই ২০২১ সালের ৬ অক্টোবর ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হয়ে যায় নিউমার্কেটের মুদিমনোহরি, কসমেটিক, চালের আরদ সহ প্রায় শতাধিক ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান। ভস্মিভূত হয়ে যায় অনেক পরিবারে স্বপ্ন। অনেকেই হাড়িয়ে ফেলেন তাদের শেষ সম্বলটুকু। এই ঘটনার কিছুদিন পরেই সেই স্থানে নির্মান কাজ শুরু হয় বহুতল ভবনের। আধুনিক মার্কেটের নামে মানুষের ভাঙ্গা স্বপ্ন দিয়ে গড়ে ওঠা সেই চারতলা মার্কেটের অল্প কিছু নির্মান কাজ শেষ করেই শুরু হয় স্টল বরাদ্দের কাজ। পাঁচ হাজার টাকার অফেরৎ যোগ্য মূল্যে ছাড়া হয় ফর্ম। এই ফর্ম থেকে লটারির মাধ্যমে নির্ধারিত হবে স্টল। তবে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মার্কেটের প্রথম সারির স্টল দেয়া হবে লটারি ব্যাতিত তৎকালীন সময়ে এমন কথা দেন পৌর মেয়র। তবে মার্কেটের অনেকগুলো স্টল ভৌতিকভাবে বরাদ্দ পায় বর্তমান মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদের আত্মীয়-স্বজনরা। যার মধ্যে রয়েছে তার আপন বড় ভাইয়ের ছেলে আদনান শাহরিয়ার আবিদ, মেয়রের চাচাতো ভাই পটুয়াখালী সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও কমলাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ মনির হোসেন মৃধার স্ত্রী লিমা রহমান সহ আরো অনেকে।

আত্মিয়দের নামে একাধিক স্টল বরাদ্দের বিষয়ে পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, পটুয়াখালী পৌরসভা উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় নিউমার্কেটের কিচেন মার্কেট নির্মান করা হয়েছে। তবে এখনও শেষ হয়নি। ভাইয়ের ছেলে আবিদের নামে কোন স্টল বরাদ্ধ নাই। তাছাড়া আবিদ মানসিক প্রতিবন্ধী তার কথা কতটুকু কাউন্টাবল? পাল্টা প্রশ্ন করেন তিনি। এছাড়া কাউন্সিলর ও যুবলীগ সভাপতির স্ত্রীর ও তার চাচাত ভাইয়ের স্ত্রীর নামে বরাদ্দকৃত স্টলের ব্যপারে তিনি কোন সদত্তর দিতে পারেননি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

এখন পটুয়াখালী পৌরসভা নির্বাচন চলে। এই মুহুর্তে স্টল নিয়ে এতো কথা বলছেন কেন ?

আপডেট সময় : ১২:০৮:২০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : আগামী ৯ মার্চ পটুয়াখালী পৌরসভার নির্বাচন। পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ’র নামে পৌর নিউমার্কেটে স্টল বরাদ্দে অনিয়ম ও অভিযোগ উঠতে তার সত্যতা যাচাই করতে গিয়ে পটুয়াখালী বিএনপি নেতা ও পৌর মেয়রের চাচাতো ভাই’র সাংবাদিকদের গালিগাল ও ডিজিটাল নিরাপত্তা মামলার হুমকির তোপে গণমাধ্যমের কর্মীরা।

পৌর নিউমার্কেটে স্টল বরাদ্দে অনিয়ম ও অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ে সরেজমিনে দেখতে গিয়ে পৌর নিউমার্কেটের কিচেন মার্কেটের নিচ তলার ১০৪ নাম্বার তুলনা স্টোর্স নামের স্টলের প্রোপাইটরের ফোন নাম্বারে যোগাযোগ করলে ফোনটি রিসিভ করেন লিমা রহমানের স্বামী কমলাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনির। এসময় স্টলের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের অকথ্য ভাষায় গালিগাল করেন এবং তিনি সাংবাদিকদের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দেয়ার হুমকি দেন।

স্টল বরাদ্দের বিষয়ে তুলনা স্টোরের প্রোপাইটার মনির চ্যেয়ারম্যানের স্ত্রীর লিমার বক্তব্যের জন্য তার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে আবারো ফোনটি রিসিভ করেন ইউপি চেয়ারম্যান মনির হোসেন। এসময় তিনি বলেন, “এখন পটুয়াখালী পৌরসভা নির্বাচন চলে। এই মুহুর্তে স্টল নিয়ে এতো কথা বলছেন কেন!”

এবিষয়ে তুলনা স্টোরের প্রোপাইটার লিমা রহমান জানান, চরপাড়া আমার ঘর ভাঙ্গা হয়েছে আর সে কারনেই নিউমার্কেটের কিচেন মার্কেটে স্টল পাই।
খোজ নিয়ে যানাযায় এই লিমা রহমান পটুয়াখালীর চরপাড়ায় সরকারি জমি দখল করে ঘড় উঠিয়ে ভাড়া দিতেন। নদী দখল মুক্ত করার অভিযানে ভেঙ্গে ফেলা হয় সেই ঘড়।মেয়রের আত্মীয় হিসেবে সেই ঘড়ের ক্ষতিপূরণ হিসেবে তিনি কিচেন মার্কেটে স্টল বরাদ্দ পেলেও ওই একই সরকারি জায়গাতে ঝুঁপড়ি ঘড়ে থাকা ছিন্নমূল ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের মাথা গোঁজার কোন ব্যাবস্থাই করেননি পৌর মেয়র মহিউদ্দিন।

পটুয়াখালী পৌর নিউমার্কেটে ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে মেয়র মহিউদ্দিন পৌর নিউমার্কেট বাজারে কিচেন মার্কেট করার ঘোষনা দেয়। এরপরে পৌরসভার পক্ষ থেকে নিউমার্কেটের ব্যাবসায়ীদের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান স্থানান্তর করার জন্য দফায় দফায় বৈঠক করা হয়। তবে স্থান দ্রুত পরিবর্তন করাটা ব্যাবসায়ীদের জন্য সহজ ছিল না। তবে নিউমার্কেটের ব্যাবসায়ীদের সাথে পৌর কর্তৃপক্ষের আলোচনার একমাস শেষ হতে না হতেই হঠাৎ করেই ২০২১ সালের ৬ অক্টোবর ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হয়ে যায় নিউমার্কেটের মুদিমনোহরি, কসমেটিক, চালের আরদ সহ প্রায় শতাধিক ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান। ভস্মিভূত হয়ে যায় অনেক পরিবারে স্বপ্ন। অনেকেই হাড়িয়ে ফেলেন তাদের শেষ সম্বলটুকু। এই ঘটনার কিছুদিন পরেই সেই স্থানে নির্মান কাজ শুরু হয় বহুতল ভবনের। আধুনিক মার্কেটের নামে মানুষের ভাঙ্গা স্বপ্ন দিয়ে গড়ে ওঠা সেই চারতলা মার্কেটের অল্প কিছু নির্মান কাজ শেষ করেই শুরু হয় স্টল বরাদ্দের কাজ। পাঁচ হাজার টাকার অফেরৎ যোগ্য মূল্যে ছাড়া হয় ফর্ম। এই ফর্ম থেকে লটারির মাধ্যমে নির্ধারিত হবে স্টল। তবে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মার্কেটের প্রথম সারির স্টল দেয়া হবে লটারি ব্যাতিত তৎকালীন সময়ে এমন কথা দেন পৌর মেয়র। তবে মার্কেটের অনেকগুলো স্টল ভৌতিকভাবে বরাদ্দ পায় বর্তমান মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদের আত্মীয়-স্বজনরা। যার মধ্যে রয়েছে তার আপন বড় ভাইয়ের ছেলে আদনান শাহরিয়ার আবিদ, মেয়রের চাচাতো ভাই পটুয়াখালী সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও কমলাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ মনির হোসেন মৃধার স্ত্রী লিমা রহমান সহ আরো অনেকে।

আত্মিয়দের নামে একাধিক স্টল বরাদ্দের বিষয়ে পৌর মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, পটুয়াখালী পৌরসভা উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় নিউমার্কেটের কিচেন মার্কেট নির্মান করা হয়েছে। তবে এখনও শেষ হয়নি। ভাইয়ের ছেলে আবিদের নামে কোন স্টল বরাদ্ধ নাই। তাছাড়া আবিদ মানসিক প্রতিবন্ধী তার কথা কতটুকু কাউন্টাবল? পাল্টা প্রশ্ন করেন তিনি। এছাড়া কাউন্সিলর ও যুবলীগ সভাপতির স্ত্রীর ও তার চাচাত ভাইয়ের স্ত্রীর নামে বরাদ্দকৃত স্টলের ব্যপারে তিনি কোন সদত্তর দিতে পারেননি।