বরিশাল ০২:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
গৌরনদীতে ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলা ও বাইকে অগ্নিসংযোগ, ২০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ২ বরিশালে পুলিশ বক্সে হামলা অজ্ঞাত ৩০০ জনের নামে মামলা মাদারীপুরে কোটা সংস্কার আন্দোলকারীদের সঙ্গে পুলিশ-ছাত্রলীগের ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ১ আক্রমণ না করার শর্তে ববি ক্যাম্পাস ছেড়েছে পুলিশ-বিজিবি উজিরপুরে কোটা বিরোধী আন্দোলনে হামলার প্রতিবাদে সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল ভোলায় কোটা আন্দোলনের নামে ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা বাবা মুক্তিযোদ্ধা না তবু ও কোটায় চাকরি তিন ছেলের যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান’র মৃত্যুবার্ষিকীতে গৌরনদীতে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত ভোলায় হাসপাতালে লাশ রেখে পালালেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন, স্বজনদের দাবি হত্যা নলছিটিতে চাচাকে হত্যা চেষ্টা মামলায় ভাতিজা গ্রেপ্তার

আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো ছারছীনা দরবারের বার্ষিক মাহফিল

নাঈমুর রহমান ছরোয়ার
  • আপডেট সময় : ০৯:২৮:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪ ২১৫ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক—  আমীরে হিযবুল্লাহ ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.) বলেছেন— আজ ছারছীনা দরবার শরীফের ১৩৪ তম মাহফিল শেষ হতে চলছে। এ দরবারের একমাত্র কাজ হচ্ছে মানুষকে তা’লীম, তালকীন ও ওয়াজ নসীহতের মাধ্যমে আমলের দিকে ধাবিত করা। সর্বদা নেক আমলের দিকে মানুষকে উৎসাহিত করা। শতাব্দীর সেরা এই দরবার থেকে ইসলামের পক্ষে অবস্থান ছিল সর্বোচ্চ স্থানে। যেহেতু আমরা কোন দলীয় রাজনীতি করিনা তাই কাহারও সাথে আমাদের কোন দলীয় সংঘাত নেই। আপনারা দরবারে আসবেন একটি উদ্দেশ্য নিয়ে যেন নেক আমল করে আল্লাহওয়ালা হতে পারেন। আপনারা বদ আক্বীদা থেকে বিমূখ থাকবেন। কেননা বদ আক্বীদা মানুষের ঈমানকে চিরতরে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়। হযরত পীর ছাহেব কেবলা আরও বলেন— আপনাদের সন্তানগণ আপনাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম। এদের আমল, আখলাক, লেবাস, আদব ঠিক রাখতে সারাদেশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে দ্বিনীয়া মাদ্রাসা। আপনাদের সন্তানদেরকে দ্বিনীয়ার শিক্ষায় শিক্ষিত করার উদাত্ত আহ্বান জানাি”ছ। গতকাল ছারছীনা দরবার শরিফের তিনদিনব্যাপী ১৩৪ তম বার্ষিক ঈসালে সাওয়াব মাহফিলের শেষ দিন আখেরী মুনাজাতের পূর্বে সংক্ষিপ্ত নসীহত প্রদান করতে গিয়ে হযরত পীর ছাহেব কেবলা একথা বলেন। পিরোজপুরের সন্ধ্যা নদীর তীরে অবি¯’ত দরবার শরিফে মাহফিলের বিশাল ময়দান মুনাজাতের পূর্বেই কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। এ সময় তিল ধারণের কোন ¯’ান ছিলনা। উল্লেখ্য এ বছর পবিত্র রমজান হওয়ায় বাংলাদেশের সর্বব”হৎ তারবীর নামাজ লক্ষাধিক মুসুল্লির অংশগ্রহণে এ দরবারে অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিলে ইসলামের মৌলিক বিষয়াবলীর ওপর দলিলভিত্তিক আলোচনা পেশ করেন যথাক্রমে বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর নায়েবে আমীর ও হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন, দারুন্নাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসার মুফতী মাওঃ ওসমান গণি ছালেহী, ছারছীনা আলিয়া মাদ্রসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওঃ রূহুল আমিন ছালেহী, বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর কেন্দ্রিয় মুফতী মাওঃ মাহমুদুম মুনীর হামীম, হাফেজ মাওঃ মোঃ বোরহান উদ্দিন ছালেহী প্রমুখ ওলামায়ে কেরাম। বাদ জোহর দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন ছারছীনা শরিফের পীর সাহেব কেবলা আলহাজ হযরত মাওলানা শাহ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.)। আখেরী মুনাজাতে সকলের আমিন আমিন ধ্বনিতে ও ক্রন্দনে আকাশ বাতাস ভারাক্রান্ত হয়ে ওঠে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো ছারছীনা দরবারের বার্ষিক মাহফিল

আপডেট সময় : ০৯:২৮:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৩ মার্চ ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক—  আমীরে হিযবুল্লাহ ছারছীনা শরীফের পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.) বলেছেন— আজ ছারছীনা দরবার শরীফের ১৩৪ তম মাহফিল শেষ হতে চলছে। এ দরবারের একমাত্র কাজ হচ্ছে মানুষকে তা’লীম, তালকীন ও ওয়াজ নসীহতের মাধ্যমে আমলের দিকে ধাবিত করা। সর্বদা নেক আমলের দিকে মানুষকে উৎসাহিত করা। শতাব্দীর সেরা এই দরবার থেকে ইসলামের পক্ষে অবস্থান ছিল সর্বোচ্চ স্থানে। যেহেতু আমরা কোন দলীয় রাজনীতি করিনা তাই কাহারও সাথে আমাদের কোন দলীয় সংঘাত নেই। আপনারা দরবারে আসবেন একটি উদ্দেশ্য নিয়ে যেন নেক আমল করে আল্লাহওয়ালা হতে পারেন। আপনারা বদ আক্বীদা থেকে বিমূখ থাকবেন। কেননা বদ আক্বীদা মানুষের ঈমানকে চিরতরে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়। হযরত পীর ছাহেব কেবলা আরও বলেন— আপনাদের সন্তানগণ আপনাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম। এদের আমল, আখলাক, লেবাস, আদব ঠিক রাখতে সারাদেশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে দ্বিনীয়া মাদ্রাসা। আপনাদের সন্তানদেরকে দ্বিনীয়ার শিক্ষায় শিক্ষিত করার উদাত্ত আহ্বান জানাি”ছ। গতকাল ছারছীনা দরবার শরিফের তিনদিনব্যাপী ১৩৪ তম বার্ষিক ঈসালে সাওয়াব মাহফিলের শেষ দিন আখেরী মুনাজাতের পূর্বে সংক্ষিপ্ত নসীহত প্রদান করতে গিয়ে হযরত পীর ছাহেব কেবলা একথা বলেন। পিরোজপুরের সন্ধ্যা নদীর তীরে অবি¯’ত দরবার শরিফে মাহফিলের বিশাল ময়দান মুনাজাতের পূর্বেই কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। এ সময় তিল ধারণের কোন ¯’ান ছিলনা। উল্লেখ্য এ বছর পবিত্র রমজান হওয়ায় বাংলাদেশের সর্বব”হৎ তারবীর নামাজ লক্ষাধিক মুসুল্লির অংশগ্রহণে এ দরবারে অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিলে ইসলামের মৌলিক বিষয়াবলীর ওপর দলিলভিত্তিক আলোচনা পেশ করেন যথাক্রমে বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর নায়েবে আমীর ও হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন, দারুন্নাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসার মুফতী মাওঃ ওসমান গণি ছালেহী, ছারছীনা আলিয়া মাদ্রসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওঃ রূহুল আমিন ছালেহী, বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর কেন্দ্রিয় মুফতী মাওঃ মাহমুদুম মুনীর হামীম, হাফেজ মাওঃ মোঃ বোরহান উদ্দিন ছালেহী প্রমুখ ওলামায়ে কেরাম। বাদ জোহর দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন ছারছীনা শরিফের পীর সাহেব কেবলা আলহাজ হযরত মাওলানা শাহ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা.জি.আ.)। আখেরী মুনাজাতে সকলের আমিন আমিন ধ্বনিতে ও ক্রন্দনে আকাশ বাতাস ভারাক্রান্ত হয়ে ওঠে।