বরিশাল ০৮:২৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বানারীপাড়ায় মায়ের যৌন লালসার বলি ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী বরিশালে শালিণ্য’র আয়োজনে নিরাপদ পানি বিষয়ক ক্যাম্পেইন ও নানান কর্মসূচি পালিত  পটুয়াখালী উপজেলা পরিষদে নতুন তিন মুখের বিজয়ের হাসি বেতাগীতে স্মার্ট ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে র‍্যালি ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত উজিরপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহ উদ্ধোধন  উজিরপুরে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানকে বরন তালতলীতে বিজয়ী প্রার্থী মিন্টুর সমর্থককে মারধর, দোকান ভাংচুর করে লুট গৌরনদীতে মটর সাইকেলের সর্বশেষ জনসভা অনুষ্ঠিত বিজয়ী ফলাফলে নেতাকর্মীদের অতিউৎসাহিত না হওয়ার জন্য নির্দেশ দেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ইকবাল মঠবাড়িয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় হামলার শিকার ব্যবসায়ী নিহত

বাবুগঞ্জে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য বাবু কর্তৃক প্রধান শিক্ষিকাকে মারধর

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:১১:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪ ৪৩ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক— বরিশালের বাবুগঞ্জের চাঁদপাশা বকশিরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগমকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য আকতার হোসেন বাবু ও তার সহযোগীরা লাথি, কিল, ঘুষি ও পিটিয়ে জখম করেছে। গুরুতর আহত প্রধান শিক্ষিকাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বরিশাল বিমান বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগম সাংবাদিকদের বৃহস্পতিবার বিকেলে বলেন, বুধবার (২০ মার্চ) দুপুরে বিদ্যালয়ের ক্লাস চলাকালীন অবস্থায় ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য বাবু এবং তার সহযোগীরা আমাকে টেনে হিচড়ে বিদ্যালয়ের মাঠে এনে এলোপাথারী লাথি, কিল, ঘুষি ও জুতা দিয়ে পিটিয়েছে। সম্প্রতি বিদ্যালয়ের এডহক কমিটি গঠন হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয় বাবু। এরপর থেকে আমাকে আক্রমন করার চেষ্টা করে আসছে। বাবুর বোন স্কুলের সহকারী শিক্ষিকা খুরশিদা বিভিন্ন সময়ে আমার সাথে বাকবিতণ্ডে লিপ্ত হয়। বুধবার স্কুল পরিদর্শনে ডিডি স্যার আসেন। ডিডি স্যার যাওয়ার পর ফের আমার সাথে ভাইয়ের পক্ষ হয়ে বাকবিতণ্ডা করে খুরশিদা। একপর্যায়ে খুরশিদা বেগম তার ভাইকে ফোন করে স্কুলে এনে আমাকে ক্লাস থেকে টেনে বিদ্যালয়ের মাঠে এনে বেধম মারধর করে। এসময় আমার ছোট মেয়ে প্রতিবাদ করলে তাকেও মারধর করে। এছাড়া একইদিন আমার ছেলে অনিককে বাজারের ব্রিজের ঢালে পথরোধ করে বাবু ও তার সহযোগীরা মারধর করেছে। এ ঘটনায় বরিশাল বিমানবন্দর থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগম হামলাকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। স্কুলের শিক্ষিকা সাবিনা ইয়াসমিন, ইসমত আরা মনি, সেলিনা আক্তার, খাদিজা আক্তার, খুরশিদ জাহান বলেন, আকতার হোসেন বাবু মোটরসাইকেলযোগে স্কুলে এসে প্রধান শিক্ষিকাকে মারধর করেছে। বাবুর বোন খুরশিদা বেগম বলেন, প্রধান শিক্ষিকাকে মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি। তবে আমার ভাই বিদ্যালয়ে আসার পর প্রধান শিক্ষিকা তাকে খারাপ ভাষায় কথা বলেন। এ নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়েছে। এসব প্রসঙ্গে অভিযুক্ত আকতার হোসেন বাবু বলেন, আমার সাথে প্রধান শিক্ষিকার হাতাহাতি হয়েছে। তাকে মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বাবুগঞ্জে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য বাবু কর্তৃক প্রধান শিক্ষিকাকে মারধর

আপডেট সময় : ১১:১১:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক— বরিশালের বাবুগঞ্জের চাঁদপাশা বকশিরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগমকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য আকতার হোসেন বাবু ও তার সহযোগীরা লাথি, কিল, ঘুষি ও পিটিয়ে জখম করেছে। গুরুতর আহত প্রধান শিক্ষিকাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বরিশাল বিমান বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগম সাংবাদিকদের বৃহস্পতিবার বিকেলে বলেন, বুধবার (২০ মার্চ) দুপুরে বিদ্যালয়ের ক্লাস চলাকালীন অবস্থায় ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য বাবু এবং তার সহযোগীরা আমাকে টেনে হিচড়ে বিদ্যালয়ের মাঠে এনে এলোপাথারী লাথি, কিল, ঘুষি ও জুতা দিয়ে পিটিয়েছে। সম্প্রতি বিদ্যালয়ের এডহক কমিটি গঠন হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয় বাবু। এরপর থেকে আমাকে আক্রমন করার চেষ্টা করে আসছে। বাবুর বোন স্কুলের সহকারী শিক্ষিকা খুরশিদা বিভিন্ন সময়ে আমার সাথে বাকবিতণ্ডে লিপ্ত হয়। বুধবার স্কুল পরিদর্শনে ডিডি স্যার আসেন। ডিডি স্যার যাওয়ার পর ফের আমার সাথে ভাইয়ের পক্ষ হয়ে বাকবিতণ্ডা করে খুরশিদা। একপর্যায়ে খুরশিদা বেগম তার ভাইকে ফোন করে স্কুলে এনে আমাকে ক্লাস থেকে টেনে বিদ্যালয়ের মাঠে এনে বেধম মারধর করে। এসময় আমার ছোট মেয়ে প্রতিবাদ করলে তাকেও মারধর করে। এছাড়া একইদিন আমার ছেলে অনিককে বাজারের ব্রিজের ঢালে পথরোধ করে বাবু ও তার সহযোগীরা মারধর করেছে। এ ঘটনায় বরিশাল বিমানবন্দর থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগম হামলাকারীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। স্কুলের শিক্ষিকা সাবিনা ইয়াসমিন, ইসমত আরা মনি, সেলিনা আক্তার, খাদিজা আক্তার, খুরশিদ জাহান বলেন, আকতার হোসেন বাবু মোটরসাইকেলযোগে স্কুলে এসে প্রধান শিক্ষিকাকে মারধর করেছে। বাবুর বোন খুরশিদা বেগম বলেন, প্রধান শিক্ষিকাকে মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি। তবে আমার ভাই বিদ্যালয়ে আসার পর প্রধান শিক্ষিকা তাকে খারাপ ভাষায় কথা বলেন। এ নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়েছে। এসব প্রসঙ্গে অভিযুক্ত আকতার হোসেন বাবু বলেন, আমার সাথে প্রধান শিক্ষিকার হাতাহাতি হয়েছে। তাকে মারধরের কোন ঘটনা ঘটেনি।