বরিশাল ১২:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বাবা মুক্তিযোদ্ধা না তবু ও কোটায় চাকরি তিন ছেলের যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান’র মৃত্যুবার্ষিকীতে গৌরনদীতে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত ভোলায় হাসপাতালে লাশ রেখে পালালেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন, স্বজনদের দাবি হত্যা নলছিটিতে চাচাকে হত্যা চেষ্টা মামলায় ভাতিজা গ্রেপ্তার বিয়ের দাবিতে ছাত্রদল নেতার বাড়িতে তরুণীর অনশন মাদারীপুরে দুগ্ধপোষ্য ২ সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে মানসিক ভারসাম্যহীন মা গৌরনদীতে পূর্ব শত্রুতার একজনকে খুপিয়ে জখম আমতলীতে গুপ্তধন দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নিলো কবিরাজ ভোলায় ১১৫ পিস ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুই চিকিৎসকের মধ্যে হাতাহাতি

পটুয়াখালীতে ডিসির কাছে ৭ ইউপি সদস্যর অভিযোগ

পটুয়াখালীতে কাজ না করেই প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ করেন ইউপি চেয়ারম্যান

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:২২:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪ ১৭১ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখালী প্রতিনিধি— পটুয়াখালী সদর উপজেলার বড় বিঘাই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোঃ আবু জাফর হাওলাদার এর বিরুদ্ধে সরকারি প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে ওই ইউনিয়নের সাত ইউপি সদস্য খ,মু মাইনুল আহসান (জিয়া), সদস্য, ৩ নং ওয়ার্ড; মোঃ জামাল হোসেন (মিন্টু), সদস্য, ৬নং ওয়ার্ড; মোঃ মিজানুর রহমান, সদস্য, ৮ নং ওয়ার্ড; জামাল হোসেন হাওলাদার, সদস্য, ৯ নং ওয়ার্ড; মোঃ কাওছার আকন, সদস্য, ২ নং ওয়ার্ড; সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মোসাম্মৎ বিউটি বেগম, সদস্য, ১.২.৩ নং ওয়ার্ড; মোসাম্মৎ মনির আক্তার, সদস্য, ৫.৬.৭ নং ওয়ার্ডের সদস্যরা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক, উপজেলা প্রশাসন ও দুর্নীতি দমন কমিশনসহ বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগে বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে কোনটি আংশিক আবার কোনোটির কোনো কাজ না করেই লাভবান হওয়ার জন্য অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

লিখিত অভিযোগে ইউপি সদস্যরা উল্লেখ করেন, নামমাত্র কাজ করে ২০২২-২৩ ইং অর্থবছরে ইউনিয়নের উন্নয়ন সহায়তা কর্মসূচির বরাদ্দের লাখ লাখ টাকা তুলে নেন চেয়ারম্যান। এছাড়া ওই ইউনিয়নের ৩ নং ও ৬ নং ওয়ার্ডের জনসাধারণকে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের বরাদ্দকৃত টিউবওয়েল পাওয়ার উদ্দেশ্যে ৮০০০/১৬০০০ হাজার টাকা করে আত্মসাৎ করে।

লিখিত অভিযোগে আরও বলা হয়, ইউপি সদস্যদের প্রকল্পের সিপিসি করে ফাঁকা রেজ্যুলেশন খাতায় স্বাক্ষর নেন চেয়ারম্যান। এরপর তিনি নিজেই প্রকল্পের টাকা তুলে নেন।

এতে আরও উল্লেখ করা হয়, ইউনিয়নে হোল্ডিং নম্বর দেওয়ার নামে লোকজনের থেকে লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন চেয়ারম্যান। গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিটা) ও কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা) প্রকল্পের রাস্তা না করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন চেয়ারম্যান।

অভিযোগের বিষয়ে বড় বিঘাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবু জাফর হাওলাদার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পটুয়াখালীতে ডিসির কাছে ৭ ইউপি সদস্যর অভিযোগ

পটুয়াখালীতে কাজ না করেই প্রকল্পের অর্থ আত্মসাৎ করেন ইউপি চেয়ারম্যান

আপডেট সময় : ০৪:২২:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪

পটুয়াখালী প্রতিনিধি— পটুয়াখালী সদর উপজেলার বড় বিঘাই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোঃ আবু জাফর হাওলাদার এর বিরুদ্ধে সরকারি প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে ওই ইউনিয়নের সাত ইউপি সদস্য খ,মু মাইনুল আহসান (জিয়া), সদস্য, ৩ নং ওয়ার্ড; মোঃ জামাল হোসেন (মিন্টু), সদস্য, ৬নং ওয়ার্ড; মোঃ মিজানুর রহমান, সদস্য, ৮ নং ওয়ার্ড; জামাল হোসেন হাওলাদার, সদস্য, ৯ নং ওয়ার্ড; মোঃ কাওছার আকন, সদস্য, ২ নং ওয়ার্ড; সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মোসাম্মৎ বিউটি বেগম, সদস্য, ১.২.৩ নং ওয়ার্ড; মোসাম্মৎ মনির আক্তার, সদস্য, ৫.৬.৭ নং ওয়ার্ডের সদস্যরা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক, উপজেলা প্রশাসন ও দুর্নীতি দমন কমিশনসহ বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগে বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে কোনটি আংশিক আবার কোনোটির কোনো কাজ না করেই লাভবান হওয়ার জন্য অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

লিখিত অভিযোগে ইউপি সদস্যরা উল্লেখ করেন, নামমাত্র কাজ করে ২০২২-২৩ ইং অর্থবছরে ইউনিয়নের উন্নয়ন সহায়তা কর্মসূচির বরাদ্দের লাখ লাখ টাকা তুলে নেন চেয়ারম্যান। এছাড়া ওই ইউনিয়নের ৩ নং ও ৬ নং ওয়ার্ডের জনসাধারণকে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের বরাদ্দকৃত টিউবওয়েল পাওয়ার উদ্দেশ্যে ৮০০০/১৬০০০ হাজার টাকা করে আত্মসাৎ করে।

লিখিত অভিযোগে আরও বলা হয়, ইউপি সদস্যদের প্রকল্পের সিপিসি করে ফাঁকা রেজ্যুলেশন খাতায় স্বাক্ষর নেন চেয়ারম্যান। এরপর তিনি নিজেই প্রকল্পের টাকা তুলে নেন।

এতে আরও উল্লেখ করা হয়, ইউনিয়নে হোল্ডিং নম্বর দেওয়ার নামে লোকজনের থেকে লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন চেয়ারম্যান। গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার (কাবিটা) ও কাজের বিনিময়ে খাদ্য (কাবিখা) প্রকল্পের রাস্তা না করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন চেয়ারম্যান।

অভিযোগের বিষয়ে বড় বিঘাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবু জাফর হাওলাদার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।