বরিশাল ১১:৫১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বাবা মুক্তিযোদ্ধা না তবু ও কোটায় চাকরি তিন ছেলের যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান’র মৃত্যুবার্ষিকীতে গৌরনদীতে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত ভোলায় হাসপাতালে লাশ রেখে পালালেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন, স্বজনদের দাবি হত্যা নলছিটিতে চাচাকে হত্যা চেষ্টা মামলায় ভাতিজা গ্রেপ্তার বিয়ের দাবিতে ছাত্রদল নেতার বাড়িতে তরুণীর অনশন মাদারীপুরে দুগ্ধপোষ্য ২ সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে মানসিক ভারসাম্যহীন মা গৌরনদীতে পূর্ব শত্রুতার একজনকে খুপিয়ে জখম আমতলীতে গুপ্তধন দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নিলো কবিরাজ ভোলায় ১১৫ পিস ইয়াবাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুই চিকিৎসকের মধ্যে হাতাহাতি

বীর মুক্তিযোদ্ধারা হলেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান : মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি

আকাইদুল ইসলাম সহাদ
  • আপডেট সময় : ০৯:০৭:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪ ৪৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক— পিরোজপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন মহারাজ বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধারা যদি জীবনবাজি রেখে যুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সৃষ্টি না করতেন তাহলে মহান সংসদের সংসদ সদস্য তো দূরের কথা জাতীয় সংসদের পিওন হওয়ার যোগ্যতাও আমাদের থাকতো না। বীর মুক্তিযোদ্ধারা হলেন জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাদের সম্মান জানাতে পেরে গর্বিত আমরা। মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন আর আমাদের দায়িত্ব স্বাধীনতা রক্ষা করা।
আজ মঙ্গলবার বিকেলে ভান্ডারিয়া শেখ কামাল পৌর অডিটোরিয়ামে উপজেলা প্রসাশন ও উপজেলা পরিষদের আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহিদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে এদেশে আনেকেই রাষ্ট্র প্রধান হয়েছেন। যাতের ত্যাগের মাধ্যমে রাষ্ট্র সৃষ্টি হয়েছে সেই রাষ্ট্রের প্রধান হয়েও তাদেরকেই তারা কখনো মূল্যায়ন করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পরে তিনি আস্তে আস্তে আপনাদের মূল্যায়ন শুরু করেছে। আজ একজন গেজেটেড অফিসার যে সম্মানি পায়, আপনাদেরকে সেই সম্মানি দেয়া হয়। স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি বাংলাদেশ পরিচালনার দায়িত্বে থাকায় মুক্তিযোদ্ধারা এখন সব পর্যায়ে সঠিক সম্মান পাচ্ছেন।উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইয়াছিন আরাফাত রানা এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, ভান্ডারিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফাইজুর রশিদ খসরু, ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ আবির মোহাম্মাদ হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা বাচ্চু, আ. রশিদ মৃধা, নিজামুল হক নান্না, মো. সোহরাব হোসেন তহসীলদার প্রমুখ।অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ফুল দিয়ে সংবর্ধনা শেষে বিশিষ্ট ৩১জন বীর মুক্তিযোদ্ধা, ৪ শহীদ পরিবার ও খেতাপপ্রাপ্ত ২ জনসহ মোট ৫২৫জন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে ইফতার ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বীর মুক্তিযোদ্ধারা হলেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান : মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি

আপডেট সময় : ০৯:০৭:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক— পিরোজপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন মহারাজ বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধারা যদি জীবনবাজি রেখে যুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সৃষ্টি না করতেন তাহলে মহান সংসদের সংসদ সদস্য তো দূরের কথা জাতীয় সংসদের পিওন হওয়ার যোগ্যতাও আমাদের থাকতো না। বীর মুক্তিযোদ্ধারা হলেন জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাদের সম্মান জানাতে পেরে গর্বিত আমরা। মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন আর আমাদের দায়িত্ব স্বাধীনতা রক্ষা করা।
আজ মঙ্গলবার বিকেলে ভান্ডারিয়া শেখ কামাল পৌর অডিটোরিয়ামে উপজেলা প্রসাশন ও উপজেলা পরিষদের আয়োজনে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহিদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে এদেশে আনেকেই রাষ্ট্র প্রধান হয়েছেন। যাতের ত্যাগের মাধ্যমে রাষ্ট্র সৃষ্টি হয়েছে সেই রাষ্ট্রের প্রধান হয়েও তাদেরকেই তারা কখনো মূল্যায়ন করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পরে তিনি আস্তে আস্তে আপনাদের মূল্যায়ন শুরু করেছে। আজ একজন গেজেটেড অফিসার যে সম্মানি পায়, আপনাদেরকে সেই সম্মানি দেয়া হয়। স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি বাংলাদেশ পরিচালনার দায়িত্বে থাকায় মুক্তিযোদ্ধারা এখন সব পর্যায়ে সঠিক সম্মান পাচ্ছেন।উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইয়াছিন আরাফাত রানা এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, ভান্ডারিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফাইজুর রশিদ খসরু, ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ আবির মোহাম্মাদ হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান টুলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা বাচ্চু, আ. রশিদ মৃধা, নিজামুল হক নান্না, মো. সোহরাব হোসেন তহসীলদার প্রমুখ।অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ফুল দিয়ে সংবর্ধনা শেষে বিশিষ্ট ৩১জন বীর মুক্তিযোদ্ধা, ৪ শহীদ পরিবার ও খেতাপপ্রাপ্ত ২ জনসহ মোট ৫২৫জন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে ইফতার ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।