বরিশাল ০৯:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
উজিরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ৩ মির্জাগঞ্জে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন মঠবাড়িয়ায় প্রধান শিক্ষকের অনৈতিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন গৌরনদী উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হারিছুর রহমানের সমর্থনে বার্থীতে কর্মী সমাবেশ কারাগারের ভিতরে নারী কয়েদির সঙ্গে কারারক্ষীর অনৈতিক সম্পর্ক, অতঃপর… পটুয়াখালীতে গুনী সাংবাদিক নিয়াজ মোর্শেদ সেলিম আর নেই উজিরপুরে মাদক মামলার সংবাদ প্রকাশ করায় জামিনে এসে সাংবাদিকের ওপর হামলা উজিরপুরে শুরু হলো আড়াইশো বছরের ঐতিহ্যবাহী কাটাগাছ তলার বৈশাখী মেলা জুনের মধ্যে অর্থনৈতিক অবস্থা স্বাভাবিক হবে- এমপি মেনন রাজাপুরে বৈশাখী আনন্দে ঘুড়ি উৎসব অনুষ্ঠিত

ভোলায় নিরীহ পরিবারের উপর ইউপি সদস্যের স্বামীর হামলা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৬:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪ ১৯৪ বার পড়া হয়েছে

ভোলা প্রতিনিধি— ভোলায় সদর উপজেলার ৩নং পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ১,২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী আসনে ইউপি সদস্য হোসনেয়ারা বেগমের স্বামী মাদক কারবারি এফজাল হোসেন সোহেলের বিরুদ্ধে এক নিরীহ পরিবারের উপর নির্মমভাবে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী পরিবার সাংবাদিকদের কাছে এই অভিযোগ করেন।

অভিযুক্ত এফজাল হোসেন সোহেল পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের দক্ষিণ চরপাতা গ্রামের মৃত হানিফ মিয়ার ছেলে।

ভুক্তভোগী কালু ওরফে আমান উল্লাহ বাঘা একই গ্রামের বাসিন্দা।

ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ, সোহেল একজন চিহ্নিত মাদক কারবারি। তাঁর স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম মহিলা ইউপি সদস্য হওয়ায় ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের একাধিক নিরীহ পরিবারের উপর জবরদখল করেন তিনি। এতে কেউ বাধা দিলে তাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়।

ভুক্তভোগী আমান উল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, ১৯৯৬ সালে আমান উল্লাহ তাজল ইসলাম নামে একজনের কাছ থেকে ৮ শতাংশ জমি কিনে বসবাস করেন। কিন্তু সম্প্রতি সোহেল ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ওই জমি থেকে কালু মিয়াকে উচ্ছেদ করে জমি দখলে নেয়ার চেষ্টা করেন। এতে কালু মিয়ার পরিবার বাধা দিলে তাদের উপর নির্মম নির্যাতন চালায় সোহেল এবং উল্টো তাদের বিরুদ্ধে সদর থানায় মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদেরকে হয়রানি করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোহেল ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে নিরীহ পরিবারের উপর নির্মম নির্যাতন করে আসছে। টাকার গরমে থানা পুলিশ ম্যানেজ করে নিরীহ মানুষদেরকে হয়রানি করারও অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত সোহেলের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

ভোলা সদর মডেল থানার ওসি জানান, পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নিবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ভোলায় নিরীহ পরিবারের উপর ইউপি সদস্যের স্বামীর হামলা

আপডেট সময় : ০৯:৫৬:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪

ভোলা প্রতিনিধি— ভোলায় সদর উপজেলার ৩নং পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ১,২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী আসনে ইউপি সদস্য হোসনেয়ারা বেগমের স্বামী মাদক কারবারি এফজাল হোসেন সোহেলের বিরুদ্ধে এক নিরীহ পরিবারের উপর নির্মমভাবে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী পরিবার সাংবাদিকদের কাছে এই অভিযোগ করেন।

অভিযুক্ত এফজাল হোসেন সোহেল পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের দক্ষিণ চরপাতা গ্রামের মৃত হানিফ মিয়ার ছেলে।

ভুক্তভোগী কালু ওরফে আমান উল্লাহ বাঘা একই গ্রামের বাসিন্দা।

ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ, সোহেল একজন চিহ্নিত মাদক কারবারি। তাঁর স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম মহিলা ইউপি সদস্য হওয়ায় ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের একাধিক নিরীহ পরিবারের উপর জবরদখল করেন তিনি। এতে কেউ বাধা দিলে তাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়।

ভুক্তভোগী আমান উল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, ১৯৯৬ সালে আমান উল্লাহ তাজল ইসলাম নামে একজনের কাছ থেকে ৮ শতাংশ জমি কিনে বসবাস করেন। কিন্তু সম্প্রতি সোহেল ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ওই জমি থেকে কালু মিয়াকে উচ্ছেদ করে জমি দখলে নেয়ার চেষ্টা করেন। এতে কালু মিয়ার পরিবার বাধা দিলে তাদের উপর নির্মম নির্যাতন চালায় সোহেল এবং উল্টো তাদের বিরুদ্ধে সদর থানায় মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদেরকে হয়রানি করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোহেল ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে নিরীহ পরিবারের উপর নির্মম নির্যাতন করে আসছে। টাকার গরমে থানা পুলিশ ম্যানেজ করে নিরীহ মানুষদেরকে হয়রানি করারও অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত সোহেলের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

ভোলা সদর মডেল থানার ওসি জানান, পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নিবে।