বরিশাল ০৮:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বানারীপাড়ায় মায়ের যৌন লালসার বলি ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী বরিশালে শালিণ্য’র আয়োজনে নিরাপদ পানি বিষয়ক ক্যাম্পেইন ও নানান কর্মসূচি পালিত  পটুয়াখালী উপজেলা পরিষদে নতুন তিন মুখের বিজয়ের হাসি বেতাগীতে স্মার্ট ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে র‍্যালি ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত উজিরপুরে ভূমি সেবা সপ্তাহ উদ্ধোধন  উজিরপুরে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানকে বরন তালতলীতে বিজয়ী প্রার্থী মিন্টুর সমর্থককে মারধর, দোকান ভাংচুর করে লুট গৌরনদীতে মটর সাইকেলের সর্বশেষ জনসভা অনুষ্ঠিত বিজয়ী ফলাফলে নেতাকর্মীদের অতিউৎসাহিত না হওয়ার জন্য নির্দেশ দেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান ইকবাল মঠবাড়িয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় হামলার শিকার ব্যবসায়ী নিহত

পটুয়াখালীর কুয়াকাটার হোটেল-মোটেলগুলো আশ্রয়কেন্দ্রের জন্য ঘোষণা প্রশাসনের

বরিশাল সময় নিউজ রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০১:৩২:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪ ২৭ বার পড়া হয়েছে

পটুয়াখালী প্রতিনিধি— বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় রেমাল শক্তি সঞ্চয় করে ধেয়ে আসছে উপকূল অঞ্চলে তার খবরে মোকাবেলায় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে প্রশাসন।

এদিকে সাধারণ মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নিতে কুয়াকাটার দেড়শ হোটেল-মোটেলগুলোতে আশ্রয় কেন্দ্র ঘোষণা করা হয়েছে।

জেলায় ৭০৩টি সাইক্লোন শেল্টার ও ৩৫টি মুজিব কেল্লার সাথে কুয়াকাটার সকল আবাসিক হোটেল-মোটেল আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম দৈনিক বরিশাল সমাচারকে জানান, রেমাল মোকাবেলায় অন্য আশ্রয়কেন্দ্র গুলোর মত কুয়াকাটায় প্রায় দেড়শ হোটেল-মোটেল আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়াও কুয়াকাটা ও এর আশপাশের এলাকার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিতেই হোটেলগুলো আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কোন মানুষ সেখানে আশ্রয়ের জন্য উঠেনি। তবে প্রয়োজন হলে সেখানে মানুষ আশ্রয়গ্রহণ করবে।
এদিকে, রাত থেকেই উপকূলে বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করছে এবং গুড়িগুড়ি বৃষ্টি পর্যায়ক্রমে পড়ছে।

থেমে থেমে দমকা হাওয়ার সাথে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। সাধারণ মানুষের মাঝে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছে সিডরের আশংকার মতো।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

পটুয়াখালীর কুয়াকাটার হোটেল-মোটেলগুলো আশ্রয়কেন্দ্রের জন্য ঘোষণা প্রশাসনের

আপডেট সময় : ০১:৩২:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

পটুয়াখালী প্রতিনিধি— বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় রেমাল শক্তি সঞ্চয় করে ধেয়ে আসছে উপকূল অঞ্চলে তার খবরে মোকাবেলায় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে প্রশাসন।

এদিকে সাধারণ মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নিতে কুয়াকাটার দেড়শ হোটেল-মোটেলগুলোতে আশ্রয় কেন্দ্র ঘোষণা করা হয়েছে।

জেলায় ৭০৩টি সাইক্লোন শেল্টার ও ৩৫টি মুজিব কেল্লার সাথে কুয়াকাটার সকল আবাসিক হোটেল-মোটেল আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম দৈনিক বরিশাল সমাচারকে জানান, রেমাল মোকাবেলায় অন্য আশ্রয়কেন্দ্র গুলোর মত কুয়াকাটায় প্রায় দেড়শ হোটেল-মোটেল আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়াও কুয়াকাটা ও এর আশপাশের এলাকার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিতেই হোটেলগুলো আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কোন মানুষ সেখানে আশ্রয়ের জন্য উঠেনি। তবে প্রয়োজন হলে সেখানে মানুষ আশ্রয়গ্রহণ করবে।
এদিকে, রাত থেকেই উপকূলে বৈরী আবহাওয়া বিরাজ করছে এবং গুড়িগুড়ি বৃষ্টি পর্যায়ক্রমে পড়ছে।

থেমে থেমে দমকা হাওয়ার সাথে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। সাধারণ মানুষের মাঝে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছে সিডরের আশংকার মতো।